‘একমাত্র রাজনৈতিক নেতারাই ইচ্ছামতো নিয়ম ভাঙেন ও গড়েন’, দেবের পোস্টে নেটদুনিয়ায় শোরগোল

'একমাত্র রাজনৈতিক নেতারাই ইচ্ছামতো নিয়ম ভাঙেন ও গড়েন', দেবের পোস্টে নেটদুনিয়ায় শোরগোল
'একমাত্র রাজনৈতিক নেতারাই ইচ্ছামতো নিয়ম ভাঙেন ও গড়েন', দেবের পোস্টে নেটদুনিয়ায় শোরগোল

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একাধারে তিনি অভিনেতা, আবার একটি রাজনৈতিক দলের নেতা ও সাংসদও বটে। তিনি বাংলা চলচ্চিত্রের তরুণ ও জনপ্রিয় অভিনেতা দেব। এই মুহূর্তে দেব বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে ব্যস্ত। প্রচারের কাজে প্রায় প্রতিদিনই তিনি রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে চলেছেন। প্রত্যেক নির্বাচনী প্রচারেই তিনি বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মানুষকে সচেতনতার বার্তা দেন। সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শও দেন।

ভোটের মরশুমে দেবের রাজনৈতিক সভায় বহু মানুষের সমাগম হতে দেখা যাচ্ছে। তাই সেই সভামঞ্চ থেকেই রাজনৈতিক কথাবার্তা ছাড়াও ব্যতিক্রমী দেবকে বারবার বলতে শোনা গিয়েছে যে, ‘মাস্ক পরুন। ভোট আসবে-যাবে, জীবন ফিরে আসবে না।’ দেবের এই ব্যতিক্রমী মানসিকতার দর্শন পাওয়া গেল এবার সোশ্যাল মিডিয়াতে, তাঁর পোস্টে।

করোনা আবহে, অভিনেতা তথা নেতা দেব মাস্ক পরা নিয়ে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষ করলেন রাজনৈতিক নেতাদের। বললেন, আমাদের দেশে একমাত্র রাজনৈতিক নেতারাই পারেন ইচ্ছেমতো নিয়ম গড়তে এবং ভাঙতে। তাঁর এই টুইট ঘিরে ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ার পাশাপাশি রাজনৈতিক মহলে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

এবার আসা যাক ঠিক কী বলেছেন দেব, সেই প্রসঙ্গে। অতি সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে দেব অভিনীত চলচ্চিত্র ‘গোলন্দাজ’-এর টিজার। পয়লা বৈশাখেই এই ছবির টিজার প্রকাশিত হয়। ভারতের ‘ফুটবলের জনক’ নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারীর ভূমিকায় তাঁর অভিনয় দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন তাঁর অনুরাগীরা। এই পরিস্থিতিতে এই ছবির টিজার প্রকাশিত হওয়ার পর, তা দেখে প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনুরাগীরা।

ছবির টিজারে ভালা সাড়া পেয়ে এবং অনুরাগীদের ভালোবাসা পেয়ে আপ্লুত দেব, টুইট করে ধন্যবাদ জানান। পোস্টে লেখেন, ‘গোলন্দাজের টিজারকে এতটা ভালবাসা দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। আমরা সত্যিই আপ্লুত।’ এরপরই তিনি ফের করোনা নিয়ে মানুষকে সতর্ক করতে, বলেন ‘করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে, অকারণে বাইরে বেরবেন না। বাইরে বেরোতে হলে, মাস্ক পরুন। অবশ্য যদি আপনি কোনও রাজনৈতিক দলের নেতা না হন (আমাদের দেশে একমাত্র রাজনৈতিক নেতারাই ইচ্ছামতো নিয়ম ভাঙতে ও তৈরি করতে পারেন)।’

সতর্কতার পাশাপাশি দেবের এই ঘুরিয়ে করা ব্যঙ্গোক্তি নিয়ে ইতিমধ্যেই উত্তাল নেটদুনিয়া, রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, নিজে একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হয়েও, রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নেতা-নেত্রীদের এভাবে কটাক্ষের কারণ কী? তাহলে কী বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে এভাবে ভোটের প্রচারে অসন্তুষ্ট অভিনেতা তথা সাংসদ?

উল্লেখ্য, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি নিজেও বহু সভা-সমাবেশে অংশ নিয়েছেন। তাঁর সভায় মানুষের ভিড় একেবারে দেখার মতো। বহু মানুষের জমায়েত হয়। যদিও প্রতিটি সভা থেকেই করোনা নিয়ে সতর্ক করতে দেখা গিয়েছে অভিনেতাকে। এদিকে অন্যান্যদের ক্ষেত্রে দেখা গেছে অনেকেই প্রচারে এসে মাস্ক পরছেন না। তাহলেই এই জন্যই কি রাজনৈতিক নেতাদের এই তির্যক খোঁচা?

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.