শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

আবাস দুর্নীতি! মিথ্যে বললেই তৃণমূলকে ‍‍`রামধোলাই‍‍` দেওয়ার নিদান কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

মৌসুমী

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৩, ২০২৩, ০১:৩৭ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২৩, ০৮:৪৪ এএম

আবাস দুর্নীতি! মিথ্যে বললেই তৃণমূলকে ‍‍`রামধোলাই‍‍` দেওয়ার নিদান কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর
আবাস দুর্নীতি! মিথ্যে বললেই তৃণমূলকে ‍‍`রামধোলাই‍‍` দেওয়ার নিদান কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

রাজনীতিতে বিতর্কিত মন্তব্য করা এখন যেন ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছে। এবার আবাস দুর্নীতি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে চর্চার শিখরে কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী সুভাষ সরকার। আবাস যোজনা নিয়ে মিথ্যে কথা বললেই তৃণমূলকে ‍‍`রামধোলাই‍‍` দেওয়ার নিদান দিলেন তিনি। একইসঙ্গে এই বিষয়ে সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

সব জায়গাতেই এখন পঞ্চায়েত ভোটের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। এই পরিস্থিতি যে সোমবার সন্ধ্যা নাগাদ বাঁকুড়ায় সিমলাপাল ব্লকের কৃষ্ণপুর গ্রামে এক সভায় যোগ দেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী সুভাষ সরকার। সেখানে আবাস দুর্নীতি প্রসঙ্গে মুখ খোলেন তিনি। বলেন, "আগামী দিনে সর্বস্তরের লড়াইয়ে তৃণমূলকে পর্যুদস্ত করতে হবে। এখন বিভিন্ন রকমের মিথ্যা কথা বলবে। গ্রামে এসে মিথ্যা কথা বললে ধোলাই দিয়ে তাদের গ্রাম ছাড়া করুন। মিথ্যা কথা বলার একমাত্র শাস্তি রামধোলাই।"

পঞ্চায়েত নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই রাজনৈতিক উত্তাপ বাড়ছে। আর পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে আরো উত্তপ্ত ভাষণ দিচ্ছেন রাজনৈতিক নেতারা। সে ক্ষেত্রে বিতর্কিত মন্তব্য করতেও দুবার ভাবছেন না তারা। একই সঙ্গে দিন আবাস যোজনা নিয়ে সিবিআই তদন্তেরও দাবি তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বলেন, "আবাস দুর্নীতি শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি থেকে কোনও অংশে কম নয়। আবাস নিয়ে এখন তৃণমূলে-তৃণমূলে মারপিট চলছে। সাধারণ মানুষ পঞ্চায়েতে গিয়ে হামলা করছে। মানুষ যেভাবে এই দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে তাতে মানুষ চাইবে আবাস দুর্নীতি নিয়ে সিবিআই তদন্ত হোক। মানুষ যা চাইবে আমরাও তাই চাইব।"

সভা শেষ করে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ যোজনায় সাধারণ মানুষকে রেশনের মাধ্যমে চাল দিচ্ছেন। অথচ রাজ্যের মন্ত্রী থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলছেন তিনি চাল দিচ্ছেন। সমানে মিথ্যা কথা বলে চলেছেন। গ্রামে গিয়ে এরকম মিথ্যা কথা কেউ বললে তাকে উত্তম মধ্যম দিয়ে গ্রাম ছাড়া করার নিদান দিয়েছি।”