গোপালের হাত ভেঙেছে! কাঁদছেন পুরোহিত, চিকিৎসকদের কাছে কাতর মিনতি, প্লাস্টারের জন্য

গোপালের হাত ভেঙেছে! কাঁদছেন পুরোহিত, চিকিৎসকদের কাছে কাতর মিনতি, প্লাস্টারের জন্য
গোপালের হাত ভেঙেছে! কাঁদছেন পুরোহিত, চিকিৎসকদের কাছে কাতর মিনতি, প্লাস্টারের জন্য

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রোজ কত কি ঘটে যাহাতাহা! সত্যি আমাদের চারপাশে প্রতিদিন কতো আজব কাণ্ড যে ঘটে চলেছে তার ইয়ত্তা নেই। তবে, সম্প্রতি এমন এক ঘটনা ঘটেছে, যা চিকিৎসকদের রীতিমতো হতবাক করেছে। তাঁরা এমন কিছুর সাক্ষী হবেন এমনটা স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেননি। শুধু চিকিৎসকরাই নন, হতবাক নেটপাড়াও।

ঘটনাস্থল যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। উত্তরপ্রদেশের আগ্রাতে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে, যা দেখে তাজ্জব হওয়া ছাড়া কোনও উপায় নেই। সম্প্রতি আগ্রা হাসপাতালে হাউ হাউ করে কাঁদতে কাঁদতে ঢোকেন এক পুরোহিত। তাঁর হাতে ছিল গোপালের একটা ধাতব বিগ্রহ। এদিকে পুরোহিতকে এই অবস্থায় এভাবে আরাধ্য দেবতাকে নিয়ে হাসপাতাল চত্বরে দেখে, হতচকিত হয়ে যান চিকিৎসকেরা।

প্রথমে চিকিৎসকরা ভেবেছিলেন হয়তো পুরোহিতের কিছু হয়েছে! বা তাঁর পরিবারের কারও কিছু হয়েছে। আর সেই জন্যই তিনি হাসপাতালে ছুটে এসেছেন। কিন্তু অবাক হওয়ার আরও বাকি ছিল। চিকিৎসকদের আরও অবাক করে লেখ সিং নামে ওই পুরোহিত কাঁদতে কাঁদতে চিকিৎসকদের বলেন, “আমার গোপালের হাত ভেঙে গিয়েছে। ওঁর হাতে একটু প্লাস্টার করে দিন বাবু!”

হ্যাঁ, শেষে কিনা বিগ্রহের হাতে কিনা প্লাস্টার? মশকরা হচ্ছে নাকি। পুরোহিতের দাবিতে কী করবেন বুঝে উঠতে পারছিলেন না চিকিৎসকেরা। এটা কীভাবে সম্ভব? কিন্তু পুরোহিতও ছাড়ার পাত্র নন। কেঁদেকেটে ওই পুরোহিত তখন চিকিৎসকদের বলেন, “সকালে পুজো করছিলাম। গোপালের বিগ্রহকে স্নান করাতে গিয়ে হঠাৎই হাত থেকে পড়ে গিয়ে ওর হাতটা ভেঙে যায়। ওঁর লেগেছে। আমার সঙ্গে গোপালের আত্মার সম্পর্ক। তাই ছুটে এসেছি ওঁর চিকিৎসার জন্য।”

জানা গেছে, এরপর অনিচ্ছা সত্ত্বেও পাথরের রোগীর নাম ‘শ্রী কৃষ্ণ’ হিসেবে হাসপাতালে নথিভুক্ত করান চিকিৎসকরা। সেই বিগ্রহের হাতে ব্যান্ডেজও করে দেন তাঁরা। এদিকে, এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই হাসির রোল উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে, অনেকেই আবার ওই পুরোহিতের ভালোবাসার তারিফ‌ও করেছেন।