শেষ চার দফায় জোটের হয়ে রাজ্যে প্রচারে আসছেন রাহুল গান্ধী

শেষ চার দফায় জোটের হয়ে রাজ্যে প্রচারে আসছেন রাহুল গান্ধী
শেষ চার দফায় জোটের হয়ে রাজ্যে প্রচারে আসছেন রাহুল গান্ধী

কংগ্রেসের অস্তিত্ব প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছে বলে বারবার কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা। কিন্তু একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার আগেই রাজ্যে প্রচারে আসছেন রাহুল গান্ধী। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব রাজ্যে প্রচারে এলে এই সমস্ত গুঞ্জন থামবে বলে মনে করছে কংগ্রেস শিবির।

কংগ্রেস সূত্রে খবর, আগামী ১৪ এপ্রিল গোয়ালপোখরেতে ৩.৩০টে এবং মাটিগাড়া নকশালবাড়িতে বিকেল পাঁচটায় সভা করার কথা ছিল রাহুল গান্ধীর। কিন্তু কোচবিহারে গতকাল ভোটে ৫ জনের মৃত্যুর ঘটনায় আগামী ৭২ ঘণ্টায় সেখানে রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে নির্বাচন কমিশন। সেই কারণে রাহুল গান্ধীর রাজ্য সফরের সময় পরিবর্তন করল। জানা গেছে, গোয়ালপোখরেতে ২.৩০টে এবং মাটিগাড়া নকশালবাড়িতে বিকেল চারটায় সভা করবেন তিনি। এদিকে পঞ্চম দফার ভোটে ৭২ ঘণ্টা আগে প্রচার শেষ করতে বলা হয়েছে কমিশনের তরফে।

বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় রাজ্যে আসছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা। কিন্তু কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে প্রচারে দেখা যায়নি। এমনকি সংযুক্ত মোর্চার ব্রিগেডে সোনিয়া গান্ধীর উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তিনি আসেননি। যা নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল বিস্তর। তবে এবার জানা যাচ্ছে আগামী চার দফার প্রচারে রাজ্যে আসতে পারেন রাহুল গান্ধী। তার এই প্রচার সভায় সিপিএমের শীর্ষ নেতৃত্ব থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

এবারের নির্বাচনে মহাজোট গড়েছে বাম-কংগ্রেস-আইএসএফ। বামেদের সঙ্গে কংগ্রেসের এবং আইএসএফ-এর সমঝোতা হলেও কংগ্রেসের সঙ্গে আব্বাস সিদ্দিকীর দলের সামান্য কিছু সমস্যা রয়েছে তা বোঝাই গিয়েছে। তাই জোটের জটকে বিলীন করতে রাজ্যে কংগ্রেস নেতৃত্ব উপস্থিতি যে একান্তই তাৎপর্যপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.