অবশেষে স্বস্তি! বছরের প্রথম কালবৈশাখীতে ক্ষণিকের আরাম গরমে কাহিল বাংলার

অবশেষে স্বস্তি! বছরের প্রথম কালবৈশাখীতে ক্ষণিকের আরাম গরমে কাহিল বাংলার
অবশেষে স্বস্তি! বছরের প্রথম কালবৈশাখীতে ক্ষণিকের আরাম গরমে কাহিল বাংলার / নিজস্ব ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ গরমে নাজেহাল বাংলায় অবশেষে মিলল স্বস্তি। যদিও তা ক্ষণিকের জন্যই। বাংলায় বছরের প্রথম কালবৈশাখী ধেয়ে এল রবিবার। রবিবার দুপুরের পর রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ঝড় এবং বৃষ্টি হয়েছে। পূর্ব বর্ধমানে শিলাবৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এদিন দুপুরে আউশগ্রাম ১ ও ২ নম্বর ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় আচমকা ঝড় শুরু হয়। ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টিও নামে এলাকায়। ঝাড়গ্রামেও বৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বছরের প্রথম কালবৈশাখীর জেরে চৈত্রের শেষে অনেকটাই স্বস্তি পেলেন জেলাবাসী।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এদিন রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। মুর্শিদাবাদ, দক্ষিণ দিনাজপুর, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, বাঁকুড়ায় বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বৃষ্টি হতে পারে কলকাতাতেও।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, দুই মেদিনীপুর, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, নদিয়া, পূর্ব বর্ধমানে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির সঙ্গে ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিমি বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। তবে, উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় আপাতত বৃষ্টির কোনও পূর্বাভাস নেই বলেই আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর। ওই জেলাগুলিতে তাপমাত্রার খুব একটা হেরফের হবে না বলেই জানা গিয়েছে।

শেষ পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে মুর্শিদাবাদ জেলায় ঝড়বৃষ্টি প্রকোপ অনেকটাই কমেছে। এখন প্রবল ঝড়বৃষ্টি চলছে নদীয়া, পূর্ব বর্ধমান এবং বাঁকুড়া জেলায়। হুগলি জেলায় ও উত্তর ২৪ পরগনা জেলার উত্তরের কিছু অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি চলছে।পাশাপাশি বেশ কিছু জায়গায় শিলাবৃষ্টি লক্ষ করা যায় এদিন।

এদিন হাওয়া অফিস জানিয়েছে যে, আজ শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। অন্যদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকার কথা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.