ছুটি না পেয়ে পুলিশ স্টেশনেই নিজের ‘গায়ে হলুদ’ সারলেন মহিলা কনস্টেবল! রইল ভাইরাল ভিডিও

ছুটি না পেয়ে পুলিশ স্টেশনেই নিজের 'গায়ে হলুদ' সারলেন মহিলা কনস্টেবল! রইল ভাইরাল ভিডিও
ছুটি না পেয়ে পুলিশ স্টেশনেই নিজের 'গায়ে হলুদ' সারলেন মহিলা কনস্টেবল! রইল ভাইরাল ভিডিও

করোনা আতঙ্কে কার্যত জেরবার গোটা দেশ। দিনের পর দিন চড়ছে করোনার গ্রাফ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হারও। তবে দেশের এই কঠিন পরিস্থিতিতেও কিন্তু নিজেদের কাজ বন্ধ রাখেননি কোভিড-যোদ্ধারা। চিকিৎসক হন কি পুলিশ, নিজেদের কাজ নিষ্ঠা ভরে ঠান্ডা মাথায় সামলে যাচ্ছেন তাঁরা। দেশের জনগণকে সুরক্ষিত রাখতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন তাঁরা।

দেশের পরিস্থিতি এখন এমনই যে, নিজেদের দিকে তাকানোর বিন্দুমাত্র সময় পাচ্ছেন না কোভিড যোদ্ধারা। সমস্ত কিছু থেকে আত্মত্যাগ দিয়েই কাজ করে যেতে হচ্ছে, মিলছে না কোনও ছুটিও৷ এই অবস্থায় প্রকাশ্যে এল রাজস্থানের এক মহিলা কনস্টেবলের ঘটনা৷ ছুটি না পাওয়ায় যিনি পুলিশ স্টেশনের মধ্যেই নিজের ‘গায়ে হলুদ’ অনুষ্ঠানে মেতে উঠলেন। জানা গিয়েছে, মহিলা পুলিশটি নাম আশা। তিনি রাজস্থানের ডুঙ্গারপুর থানায় কর্তব্যরত। গত বছর মে মাসে তাঁর বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও লকডাউনের কারণে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়৷ এ বছর ৩০ এপ্রিল বিয়ে হওয়ার কথা আশাত৷ কিন্তু করোনাকালে দেশের এই পরিস্থিতিতে নিজের প্রাপ্ত ছুটি নিতে না পাওয়ার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেন আশা।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ‘গায়ে হলুদ’-এর সেই ভিডিও। তাতে দেখা যাচ্ছে, হলুদ সালোয়ার এবং লাল ওড়নায় সজ্জিত হয়ে একটি চেয়ারে বসে রয়েছেন মহিলা কনস্টেবলটি। তাঁর চারপাশে পুলিশের ইউনিফর্ম এবং মাস্ক পরা অবস্থায় বসে রয়েছেন তাঁর কয়েকজন সহকর্মী। তাঁরাই আনন্দের সঙ্গে কনস্টেবলটিকে হলুদ মাখাচ্ছেন। সমস্ত রীতি-নিয়মও পালন করছেন তাঁরাই। ইতিমধ্যে নেটমাধ্যমেও ভিডিওটি বেশ ভাইরাল হয়ে উঠেছে।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে করোনার দাপটে অসহায় সারা দেশ। গত ২৪ ঘন্টার সারা দেশে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে তিন লাখ৷ মারাও গিয়েছেন বহু মানুষ। এই অবস্থায় চিকিৎসকদের পাশাপাশি পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে প্রশাসন ব্যবস্থাও। নিজেদের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্যের কথা বিসর্জন দিয়েই দেশের মানুষের সেবায় আত্মবলিদান দিয়ে চলেছেন তাঁরা।