২৬/১১-র ভয়াবহ স্মৃতি স্মরণ করে উদারতা, সংবেদনশীলতার বার্তা রতন টাটার

২৬/১১-র ভয়াবহ স্মৃতি স্মরণ করে উদারতা, সংবেদনশীলতার বার্তা রতন টাটার
২৬/১১-র ভয়াবহ স্মৃতি স্মরণ করে উদারতা, সংবেদনশীলতার বার্তা রতন টাটার

২০০৮ সালে আজকের দিনে তছনছ হয়ে গিয়েছিল মুম্বাই। ২৬ নভেম্বরের সেই অভিশপ্ত দিন আজও স্মৃতির পাতা থেকে মুছে ফেলতে পারেননি বহু মানুষ। তাদের মধ্যে একজন বিখ্যাত শিল্পপতি রতন টাটা। আজকের দিনে তাজমহল প্যালেস হোটেলে আতঙ্কবাদী হামলা চালিয়েছিল। সেই ভয়াবহ স্মৃতি প্রসঙ্গে আজ টুইট করেন এই শিল্পপতি।

প্রসঙ্গত তাজমহল প্যালেস হোটেল বা তাজ হোটেল ১০০ বছর পুরানো এবং এই হোটেলের মালিক টাটা গ্রুপ। রতন টাটা লেখেন, “আজ আমরা অবশ্যই যাদের হারিয়েছিলাম তাদের জন্য শোক প্রকাশ করতে পারি। যারা শত্রুকে হারিয়ে আমাদের জীবন দিতে নিজের জীবনকে বলিদান দিয়েছেন তাঁদের আত্মত্যাগকে সম্মান জানাতে পারি।তবে অবশ্যই প্রশংসা করতে হবে ঐক্য এবং উদারতা, সংবেদনশীলতার যা আমাদের লালন করা উচিত। আশা করি এই করুণা, সংবেদনশীলতার ধারা অব্যাহত থাকবে সামনের বছরগুলিতেও।

প্রসঙ্গত, মুম্বাই হামলার ১ মাস পরে তাজ হোটেল পুনরায় শুরু করা হয়েছিল। ঘটনায় ৩১ জনের মৃত্যু হয় হোটেলের মধ্যেই এবং বহু অতিথি আহত হন। ২৬/১১ হামলায় তাজ হোটেলের যে ৩১ জন কর্মী এবং অতিথিদের মৃত্যু হয়েছিল তাদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে ২০০৯ সালে একটি স্মৃতিসৌধ উন্মোচন করেন রতন টাটা।

২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর পাকিস্তানের লস্কর-ই-তৈবার ১০ জন আতঙ্কবাদী তাজমহল হোটেল, ওবেরয় হোটেল, নারীমন হাউস সহ মুম্বাইয়ের একাধিক জায়গায় হামলা চালায়। পুরো ঘটনা ১৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এই আতঙ্কবাদীদের মধ্যে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারায় ৯ জন। আজমল কাসাব নামক এক জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর তাকে ফাঁসি দেওয়া হয়।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.