ব্যতিক্রমী রতন টাটা! অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ হাতছাড়া ক্রীড়াবিদদের সম্মান জানাতে নিলেন এই অভিনব উদ্যোগ

ব্যতিক্রমী রতন টাটা! অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ হাতছাড়া ক্রীড়াবিদদের সম্মান জানাতে নিলেন এই অভিনব উদ্যোগ
ব্যতিক্রমী রতন টাটা! অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ হাতছাড়া ক্রীড়াবিদদের সম্মান জানাতে নিলেন এই অভিনব উদ্যোগ

টোকিও অলিম্পিক্সে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছে ভারতীয় অ্যাথলিটদের দল। পদক জেতার ভিত্তিতে এই অলিম্পিক্স ভারতের কাছে সবচেয়ে সফল। এ বছরই অলিম্পিক্স থেকে মোট ৭ টি পদক নিয়ে দেশে ফিরেছেন ভারতীয় অ্যাথলিটরা৷ তার মধ্যে রয়েছে একটি সোনা, দু’টি রুপো ও চারটি ব্রোঞ্জ। ১৩ বছর পর এই অলিম্পিক্সেই ব্যক্তিগত সোনা জিতেছেন কোনও ভারতীয়। অ্যাথলিটরা দেশে ফিরতেই তাই তাঁদের ঘিরে শুরু হয়ে যায় সম্মাননা জানানোর পালা।

এসবের পরেও এমন বেশ কয়েকজন ভারতীয় অ্যাথলিট রয়েছেন, যাঁরা অলিম্পিক্সে অল্পের জন্য ব্রোঞ্জ হাতছাড়া করেছেন। তবে তাঁদের খেলা দেখে গর্বিত ভারতবাসী। হয়তো তাঁরা কোনও পদক জিততে পারেননি কিন্তু আপামর দেশবাসীর ভালোবাসা ও সম্মান জিতে নিয়েছেন। পদক গলায় না উঠলেও তাঁদের পারফরম্যান্সে কোনও কমতি ছিল না। এই তালিকায় সবার প্রথমেই উঠে আসবে গল্ফার অদিতি অশোক এবং মহিলা হকি দলের নাম। এছাড়াও দীপক পুনিয়া, অতনু দাস, দীপিকা কুমারী, কমলপ্রীত কৌর বা বছর ৩৮-এর মেরি কম! একটুর জন্য পদক অধরা থাকলেও পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে এঁরা দেশবাসীর মন জিতে নিয়েছেন অচিরেই৷

এবার এই সকল অ্যাথলিটদের সম্মান জানাতেই অভিনব এক উদ্যোগ নিলেন টাটা গ্রুপের প্রধান রতন টাটা। অলিম্পিক্সে যাঁরা একটুর জন্য ব্রোঞ্জ হাতছাড়া করেছেন সেই সকল খেলোয়াড়কে গাড়ি উপহার দেবে টাটা গ্রূপ। ইতিমধ্যেই সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই কথা। খুব শীঘ্রই প্রত্যেক অ্যাথলিটের হাতে তুলে দেওয়া হবে গাড়িগুলি।

সাধারণত পদকজয়ীরাই দেশে ফেরার পর সম্মানয়ায় ভেসে যাচ্ছেন। সরকার বা কর্পোরেট কোনও সংস্থার তরফ থেকে প্রায়ই পুরস্কৃত করা হচ্ছে তাঁদের। সকলেই তাঁদের নিয়েই ব্যস্ত! কিন্তু পদক হাতছাড়া করা অ্যাথলিটদের জন্য কেউই কোনও পুরস্কার বা সম্মানয়ার ব্যবস্থা করেননি। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে তাঁদের পরিশ্রমকে স্যালুট জানাচ্ছে টাটা গ্রুপ। উপহার দেওয়া হচ্ছে গাড়ি। এরকম ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগের জন্য রতন টাটাকে কুর্নিশ জানিয়েছে গোটা দেশবাসী৷