বিধি-নিষেধের মেয়াদ বাড়লেও এই বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় দিল নবান্ন

বিধি-নিষেধের মেয়াদ বাড়লেও এই বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় দিল নবান্ন
বিধি-নিষেধের মেয়াদ বাড়লেও এই বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় দিল নবান্ন

রাজ্যে লকডাউন এর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। নবান্নের তরফের জ্বালিয়ে নির্দেশিকায় প্রথমে আগের মতোই বিধি-নিষেধ বলবৎ থাকবে জানানো হলেও পরে আরও একটি নির্দেশিকা দেওয়া হয়। আরে জানানো হয় ৩১ জুলাই থেকে ৫০শতাংশ দর্শক নিয়ে খুলতে পারবে সিনেমা হল। অর্থাৎ এবারের বিধিনিষেধে ছার মিলল সিনেমা হল খোলার ক্ষেত্রে।

এদিন নবান্নের তরফে জারি করা নির্দেশিকায় জানানো হয়েছিল, 31 জুলাই থেকে আবার 15 আগস্ট পর্যন্ত বাড়লো রাজ্যের বিধিনিষেধের মেয়াদ। সে ক্ষেত্রে আগের মতই নিয়মে খোলা থাকবে দোকানপাট। তবে রাত 9 টা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত যে নাইট কারফিউ রয়েছে তাতে আরো কড়াকড়ি করা হবে বলে জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে কারফিউ যারা অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে মহামারী আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়।

বিধি-নিষেধের মেয়াদ বাড়লেও এই বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড় দিল নবান্ন

এর পরেই রাতে আরও একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে নবান্নের তরফে জানানো হয়, ৩১ জুলাই থেকে ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়ে খুলতে পারবে সিনেমা হল গুলি। তবে দেখে যথাযথভাবে করো না বিধি মানতে হবে। শারীরিক দূরত্ব বিধি মেনে মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার করে তারপরে ঢোকা যাবে সিনেমা হলে।

খোলা যাবে সিনেমা হল

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে ফের বন্ধ হয়েছিল সিনেমা হল গুলি। সিনেমা হল বন্ধ থাকার ফলে ছবি মুক্তি পাচ্ছিলনা৷ ফলে লাভের মুখ দেখা তো দূরের কথা, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা শোচনয়ী হচ্ছে ধীরে ধীরে। এদিকে এর জেরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন শিল্পীর প্রযোজক থেকে শুরু করে কলাকুশলীদের আর্থিক অবস্থা খারাপ হয়ে পড়েছে। তাই সিনেমা হল খোলার অনুমতি পেলে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হবে বলে মনে করছেন এই শিল্পের সঙ্গে যুক্ত শিল্পীরা৷