ভয়াবহ তুষারধসের সম্মুখীন উত্তরাখন্ড! বড় সিদ্ধান্তের ঘোষণা করলেন ঋষভ পন্থ

ভয়াবহ তুষারধসের সম্মুখীন উত্তরাখন্ড! বড় সিদ্ধান্তের ঘোষণা করলেন ঋষভ পন্থ
ভয়াবহ তুষারধসের সম্মুখীন উত্তরাখন্ড! বড় সিদ্ধান্তের ঘোষণা করলেন ঋষভ পন্থ / ছবি সৌজন্য: Screenshot from facebook Video Posted By @ImRishabPant

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ টানা কয়েকদিন বৃষ্টির ফলে ক্রমাগত বেড়ে চলেছে জলস্তর। বৃষ্টির সাথে সাথে তুষারপাতের দেখা মিলেছে উত্তরাখণ্ডে। আর তারফলেই উত্তরাখণ্ডে তুষারধসের সৃষ্টি হয়। এরফলে ফাটল ধরেছে ধৌলিগঙ্গার দুটি নির্মীয়মাণ বাঁধে, ভেঙে পড়েছে নন্দাদেবীর হিমবাহ। এছাড়া ভেসে গেছে আরও দুটি সেতু সহ প্লাবিত হয়েছে জোশীমঠ।

উত্তরাখন্ডের ভয়াবহ তুষারধসের ঘটনায় অনেকেই প্রার্থনা জানিয়েছেন। উল্লেখ্য গতকাল ভারতীয় ক্রিকেটার ঋষভ পন্থ উত্তরাখন্ডের ভয়াবহ তুষারধসের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ট্যুইট এর দ্বারা তাঁর একটি বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। তিনি ট্যুইট করে বলেন, উত্তরাখণ্ড তুষারধসে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলির প্রতি তিনি আন্তরিক সমবেদনা ও প্রার্থনা জানান। এছাড়া তিনি আশা করেন যারা সমস্যায় আছেন তাঁরা দ্রুত উদ্ধার করতে সক্ষম হবে উদ্ধারকারীরা।

এছাড়া তিনি বলেন, বর্তমানে চেন্নাইতে চলা ভারত ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচের পারিশ্রমিক তিনি উত্তরাখণ্ডের দুর্গত মানুষদের উদ্ধারকাজের জন্য অনুদান হিসাবে দেবেন। এছাড়া তিনি সকলকে অনুরোধও করেছেন উত্তরাখণ্ডের এই দুর্গম পরিস্থিতিতে তাঁদের পাশে থাকতে।

অন্যদিকে গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উত্তরাখন্ডবাসীর উদ্দেশ্যে প্রার্থনা জানিয়ে ট্যুইট করে বলেন যে, তিনি উত্তরাখণ্ডের দুর্ভাগ্যজনক পরিস্থিতি ক্রমাগত পর্যবেক্ষণ করে চলেছেন। উত্তরাখন্ডের সাথে আছে ভারত, এছাড়া গোটা ভারতবর্ষের মানুষ উত্তরাখণ্ডের সকলের জন্য প্রার্থনা করছে। উত্তরাখণ্ডের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে ক্রমাগত কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী, সঙ্গে উদ্ধারকার্য ও ত্রাণের বিষয়ে খোঁজ নিয়ে চলেছেন তিনি। দেখে নিন ট্যুইট টি..

সত্যিই প্রকৃতির তান্ডবের কাছে আমারা বড়ই অসহায়। উত্তরাখন্ডের এই তুষারধস আবারও মনে করিয়ে দিল ৮ বছর আগের কেদারনাথের ভয়াবহ বন্যার কথা। সুত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে চামোলি হিমবাহে ফাটলই এই ধসের সুত্রপাত। এরফলে জোশীমঠের পাশাপাশি গ্রামগুলিতেও ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া ঋষিগঙ্গা জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রেও প্রচুর ক্ষয়ক্ষতির অনুমান করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই জারি হয়েছে হাই অ্যালার্ট সহ তিনটি হেল্পলাইন নম্বর— ৯১১৩৫২৪১০১৯৭; ৯১১৮০০১৮০৪৩৭৫; ৯১৯৪৫৬৫৯৬১৯০।

প্রসঙ্গত ধুলিগঙ্গার কাছে অবস্থিত গ্রামগুলি দ্রুত খালি করার কাজ শুরু করা হয়েছে। উদ্ধার কাজে নেমেছে SDRF, ITBP ,NDRF। চামোলির তপোবন এলাকার রাণী গ্রামের কাছে থাকা বিদ্যুৎ প্রকল্পতেও ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে উত্তরাখন্ড প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১৫০ জন নিখোঁজ। জলের স্রোতে অনেকেই ভেসে গেছে বলে জানা যাচ্ছে। এমত পরিস্থিতিতে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিভেন্দ্রা সিং রাওয়াত টুইট করে বলেন, এই পরিস্থিতি সামলাতে সকলের পদক্ষেপ জরুরি। দেখে নিন ট্যুইট টি..

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.