মা ও দিদির সঙ্গে ছুটির মেজাজে ঋতাভরী! ‘আহা কী আনন্দ’ গানে নেটিজেনদের নজর কাড়লেন, রইলো ভিডিও

মা ও দিদির সঙ্গে ছুটির মেজাজে ঋতাভরী! ‘আহা কী আনন্দ’ গানে নেটিজেনদের নজর কাড়লেন, রইলো ভিডিও
মা ও দিদির সঙ্গে ছুটির মেজাজে ঋতাভরী! ‘আহা কী আনন্দ’ গানে নেটিজেনদের নজর কাড়লেন, রইলো ভিডিও

বংনিউজ২৪x৭ বিনোদন ডেস্কঃ বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে আমরা আমাদের প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী, প্রিয় গায়ক, মডেল, খেলোয়ার সহ বিনোদন জগতের সাথে যুক্ত সকলের নানা খবর মুহূর্তে পেয়ে থাকি। বিনোদন জগতের তারকারা সকলেই সোশ্যাল মিডিয়ার সাথে যুক্ত। সোশ্যাল মিডিয়ার অন্যতম ক্ষেত্র ইন্সটাগ্রাম, ফেসবুক, ট্যুইটার এর দ্বারা তারা তাদের ছবি, ভিডিও পোস্ট করে থাকেন। ভক্তদের কাছে নিজেদের নানা ছবি, ভিডিও আপলোড করে তাদের সব আপডেট দিয়ে থাকেন তাঁরা। তারমধ্যে হলেন টলিউডের অন্যতম ঋতাভরী চক্রবর্তী। আর ফের আরো একবার গান নিয়ে হাজির হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি বেশ সক্রিয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ভক্তের সংখ্যাও অনেক। ইন্সটাগ্রামে তাঁর ফলোয়ারস সংখ্যা ২.৫ মিলিয়ন। মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা ছবি, ভিডিও পোস্ট করে থাকেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি গানও খুব ভালো করেন ঋতাভরী। আর সেই প্রমাণ তিনি বহুবার দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই তার গলায় আমরা ‘রূপ সাগরে মনের মানুষ’ ও তার প্রথম হিন্দি সিঙ্গল ‘সাওন’ শুনেছি। তবে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজির হলেন মা শতরূপা সান্যাল ও দিদি চিত্রাঙ্গদা কে সঙ্গে নিয়ে।

সম্প্রতি তিনি একটি ভিডিও ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করেছেন। যেখানে মা শতরূপা সান্যাল ও দিদি চিত্রাঙ্গদার সঙ্গে ঋতাভরী কে ‘আহা কী আনন্দ আকাশে বাতাসে’ গান করতে দেখা যায়। এবং ভিডিও ক্যাপশনে লিখেছেন, “শতবার্ষিকীর প্রিয় জায়গায় তাঁর গান”। তবে এই করোনা আবহ মাঝে তারা তিনজনে কোথায় ছুটি কাটাতে গেছেন তা ঋতাভরীর পোস্ট থেকে স্পষ্ট বোঝা না গেলেও শতরূপা সান্যাল এর ফেসবুক পোস্ট দেখে তা স্পষ্ট যে তারা দার্জিলিং এ ছুটি কাটাচ্ছেন।

উল্লেখ্য একই গানের ভিডিও নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন শতরূপা সান্যাল। এবং ক্যাপশনে লিখেছেন, “১৫ বছর আগে তিতিন পলিনকে নিয়ে এসেছিলাম দার্জিলিং। আমার শুটিং ছিল “কালো চিতা”র। তখন ওরা এত্তটুকুন ছিল। ডাক্তারের পরামর্শে এখন আমাদের কিছুদিনের জন্য প্রকৃতির কাছে আসা। আবার মা মেয়ের ইউনিট এক সাথে, দার্জিলিং এ! সেই হোটেল এলগিনেই!…ভালো থাক সবাই। ভালো থাক আমাদের বাংলা। সুস্থ হয়ে উঠুক পৃথিবী!” এই গান মুহূর্তে নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।