‘ট্রেন কি নিজে নিজেই বেলাইন হয়? রেল ট্র্যাক কি বোঝে সামনে নির্বাচন’! বিস্ফোরক রূপা

‘ট্রেন কি নিজে নিজেই বেলাইন হয়? রেল ট্র্যাক কি বোঝে সামনে নির্বাচন’! বিস্ফোরক রূপা
‘ট্রেন কি নিজে নিজেই বেলাইন হয়? রেল ট্র্যাক কি বোঝে সামনে নির্বাচন’! বিস্ফোরক রূপা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ গতকালই উত্তরবঙ্গে ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা ঘটে। ময়নাগুড়িতে উল্টে যায় গুয়াহাটিগামী বিকানের এক্সপ্রেস। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে যে, লাইনচ্যুত হয়েছে চারটি বগি। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ জন। আহতের সংখ্যা বহু। বৃহস্পতিবার ৫ টা নাগাদ ময়নাগুড়ির দোমোহানি দিয়ে যাচ্ছিল ১৫৩৬৬ আপ বিকানের এক্সপ্রেস। জানা গিয়েছে, ট্রেনটির গতিবেগ ছিল ৪০ কিলোমিটার। আচমকাই লাইনচ্যুত হয় ট্রেনটির বেশ কয়েকটি বগি। তিনটি বগি একেবারে উলটে যায়। একটি বগির উপর উঠে যায় আরেকটি। শোনা যাচ্ছে, জলে পড়ে গিয়েছে একটি বগি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মোট ১২ টি কামরা।

এদিকে, এই ট্রেন দুর্ঘটনাকে নিয়ে এবার বিস্ফোরক ইঙ্গিত দিলেন বিজেপি নেত্রী তথা সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। ফেসবুক পোস্টে তিনি চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করেছেন, ‘সামনে নির্বাচন, অনেক বছর রেল নিয়ে কোনও বাজে খবর হয়নি৷ মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলেখেলা৷’ পাশাপাশি তিনি এই ট্রেন দুর্ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

গতকালের এই দুর্ঘটনার কয়েক ঘণ্টার পরেই রূপা ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘ট্রেন কি নিজে নিজেই বেলাই হয়? রেল ট্র্যাক কি বেচারা বোঝে ভাই সামনে নির্বাচন৷ রেল নিয়ে অনেক বছর কোনও বাজে খবর হয়নি৷ মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলেখেলা৷’ যদিও তিনি ঠিক কোনদিকে ইঙ্গিত করেছেন তা এই পোস্ট থেকে স্পষ্ট নয়। কারণ, একদিকে যেমন সামনেই রয়েছে উত্তরপ্রদেশ- সহ ৫ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন, সেই ভাবেই এ রাজ্যেও রয়েছে পুরসভা নির্বাচন।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিকে, রাজ্য বিজেপি-র সঙ্গে রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের সম্পর্কে অবনতি ঘটেছে বলেই খবর৷ কিছু দিন আগে বিজেপি রাজ্য সভাপতির ডাকা ভার্চুয়াল বৈঠক থেকেও বেরিয়ে গিয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ৷

এর আগে, কলকাতা পুরসভায় বিজেপি-র প্রাক্তন কাউন্সিলর তিস্তা বিশ্বাসের মৃত্যু এবং পরে পুরভোটে তাঁর স্বামীকে টিকিট না দেওয়া নিয়েও একই ধরনের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলেছিলেন এই বিজেপি নেত্রী৷ এবার ট্রেন দুর্ঘটনা নিয়েও রূপার এই পোস্টকে কেন্দ্র করে নতুন বিতর্ক শুরু হল৷

ইতিমধ্যেই জলপাইগুড়ির ট্রেন দুর্ঘটনায় উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে রেল৷ কিন্তু তাঁর যে সেই তদন্তে আস্থা নেই, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়৷ এখনও পর্যন্ত জলপাইগুড়ির ট্রেন দুর্ঘটনা নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দলই ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব সামনে আনেনি৷ কিন্তু দলের সাংসদ হয়েও রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের এই অভিযোগ রাজ্য বিজেপি-কে ফের অস্বস্তির মধ্যে ফেলে দিল৷