ভবানীপুর থেকে প্রার্থী হয়েই মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা রুদ্রনীলের

ভবানীপুর থেকে প্রার্থী হয়েই মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা রুদ্রনীলের
ভবানীপুর থেকে প্রার্থী হয়েই মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা রুদ্রনীলের/Image Source- Facebook Posted By @RudranilOfficial

ক্রমশ প্রকাশ্য আসছে বিজেপির প্রার্থী তালিকা চমক। আজ বাকি চার দফার যে 148 টি আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি তাতে ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করা হয়েছে অভিনেতার রুদ্রনীল ঘোষ কে। মুখ্যমন্ত্রীর ঘর হিসেবে পরিচিত ভবানীপুরে রুদ্রনীল প্রার্থী করা নিঃসন্দেহে উল্লেখযোগ্য একটি বিষয়। এই কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়বেন রুদ্রনীল।

মুখ্যমন্ত্রীর গড় হিসেবে পরিচিত হলেও ভবানীপুর থেকে এবছর নির্বাচনে লড়ছেন না মমতা। এবারে তার কেন্দ্র নন্দীগ্রাম। ভবানীপুর থেকে তিনি প্রার্থী করেছেন রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় কে। এই পোড়খাওয়া রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে নিজের জয় নিয়ে সম্পূর্ণ আত্মবিশ্বাসী রুদ্রনীল।

মুখ্যমন্ত্রী ভবানীপুর থেকে প্রার্থী না হওয়া নিয়ে বারবার কটাক্ষ করেছে গেরুয়া শিবির। বিজেপি নেতৃত্ব দের কথায় ভবানীপুর থেকে মুখ্যমন্ত্রী জিততে পারবেন না বলেই নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হয়েছেন। এই একই প্রসঙ্গ টেনে এদিন রুদ্রনীল জানান, “নিজের কৃতকর্মের অভিশাপ যাতে তাকে সহ্য করতে না হয় সেই বিষ্টা পান করার জন্য শোভন দেব বাবুর ভালো মানুষের সুবিধা নিলেন উনি। শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় যিনি রাসবিহারী কেন্দ্রে জিতেছেন সেই নিরীহ মানুষকে উনি ভবানীপুরে পাঠালেন।” যদিও নন্দীগ্রাম থেকেও মুখ্যমন্ত্রী হারবেন বলেই এদিন দাবি করেছেন রুদ্রনীল।

রুদ্রনীলের কথায়, “মানুষকে ভুল বোঝাতে অন্য ঠিকানায় গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর নিজের ওয়ার্ডের হেরে গিয়েছেন। এর থেকেই স্পষ্ট যে মানুষটা অন্যের ঘর বানিয়ে দেওয়ার মিথ্যা প্রচার করছেন তিনি আসলে নিজেরই ঘর গোছাতে পারেননি”।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.