যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধ ক্লাসরুমেই তৈরি হোক সেফ হোম! দাবি জানালো পড়ুয়ারা

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধ ক্লাসরুমেই তৈরি হোক সেফ হোম! দাবি জানালো পড়ুয়ারা
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধ ক্লাসরুমেই তৈরি হোক সেফ হোম! দাবি জানালো পড়ুয়ারা / প্রতীকী ছবি

যে হারে করোনা বাড়ছে তাতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে এবার সেফ হোম খোলার দাবি জানালো পড়ুয়ারা। ইতিমধ্যেই এই দাবি জানিয়ে পড়ুয়াদের তরফে উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

গত বছর থেকে করোনা শুরু হওয়ার পর থেকেই বন্ধ বিশ্ববিদ্যালয়। প্রশাসনিক কাজ চললেও পঠনপাঠনে তালা লেগেছে। তাই এই অবস্থায় পড়ুয়ারা চায় বিশ্ববিদ্যালয়ে খোলা হোক সেফ হোম। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ মত তাদের নিয়ে এসেই এই সেফ হোম চালানো হবে।

পড়ুয়াদের দাবি, যেসব ক্লাসরুম কাজে লাগছেনা, অব্যবহৃত ঘর যে গুলো পড়ে রয়েছে সেগুলিকে সেফ হোমের জন্য ব্যবহার করুক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরামর্শ করা হোক সরকারের সঙ্গে। প্রয়োজনে অভিজ্ঞ ডাক্তারদের নিয়ে এসে সেফ হোম পরিচালনা করার দাবিও তোলা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য অধ্যাপক এবং শিক্ষাবিদরাও এই বিষয়টিকে আহ্বান জানিয়েছেন।

ইতিমধ্যেই সেফ হোমের জন্য খসড়া পরিকল্পনাও তৈরি করা হয়ে গেছে। আগামী ৫ মে থেকে মোটামুটি এই সেফ হোম খুলবে বলে আশা করা হচ্ছে। এখানে আইসলেশন সহ যাবতীয় সুবিধেই থাকবে। এছাড়াও এই সেফ হোম তৈরি হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া, অধ্যাপক এবং অশিক্ষক কর্মীরাও যাতে এই সুবিধে পায় সেদিকেও নজর দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই একটি অ্যাপ তৈরি করে সকলকে চমকে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়েরই দুই পড়ুয়া। এর মাধ্যমে কোথায় কত বেড আছে, কোথায় অক্সিজেন পাওয়া যাবে তার যাবতীয় তথ্য মিলছে।