বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের
বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ রাজ্যে শুরু হয়ে গেছে ভোট যুদ্ধ। সম্পন্ন হয়েছে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম দফার ভোট প্রক্রিয়া। বাকি রইলো ৩ দফার ভোট। রাজ্যের শাসক দলে কে আধিপত্ত বিস্তার করবে তা নিয়ে চলছে রাজনৈতিক বিরোধ। রাজনৈতিক দলগুলি তাঁদের অবস্থান পাকাপক্ত করতে বহু আগে থেকেই আসরে নেমে পড়েছে। এরইমাঝে নির্বাচন ঘিরে উত্তপ্ত রাজ্য-রাজনীতি। উল্লেখ্য চতুর্থ দফার ভোটে সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রে অশান্তি এবং রক্তপাতের ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। তারমধ্যে অন্যতম শীতলকুচির মর্মান্তিক ঘটনা। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন রাজনৈতিক মহল থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ। তবে এই ঘটনা নিয়ে এক অন্য মন্তব্য করেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।

বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের
বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

সম্প্রতি একটি বৈদ্যুতিন মাধ্যমে তিনি বলেন, শীতলকুচিতে তারা খেলা দেখিয়ে দিয়েছেন। প্রথমে ১৮ বছর বয়সি আনন্দ বর্মনকে খুন করা হয়। তিনি তাদেরই একজন। তবে তারা সেই হিসেব দিয়ে ৪ জনকে স্বর্গে পাঠিয়েছেন। আর তারপরই শোলে সিনেমার একটি সংলাপ বলেন তিনি, তুম আগর এক মারো গে তো হম চার মারেঙ্গে। তারপরই তাঁর এই মন্তব্যের ব্যাখ্যা চায় কমিশন। তাঁর জবাবে সন্তুষ্ট না হওয়ায় কমিশন আগামী ২৪ ঘণ্টা অর্থাৎ আজ রবিবার সন্ধ্যে ৭ টা থেকে আগামীকাল সোমবার সন্ধ্যে ৭ টা পর্যন্ত বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর (Sayantan Basu) প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের
বিতর্কিত মন্তব্যের জের! সায়ন্তন বসু ও সুজাতা মন্ডলের ২৪ ঘণ্টা ভোট প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের

অন্যদিকে তফশিলিদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জের আগামী ২৪ ঘণ্টা অর্থাৎ আজ রবিবার সন্ধ্যে ৭ টা থেকে আগামীকাল সোমবার সন্ধ্যে ৭ টা পর্যন্ত তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডলের ভোটপ্রচারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। উল্লেখ্য কিছুদিন আগে তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ বলেছিলেন, কিছুজন আছে স্বভাবে ভিখারি, আবার কেউ কেউ থাকে অভাবে ভিখারি। তারপরই তিনি বলেন এখানকার তফসিলিরা হচ্ছে স্বভাবে ভিখারি। তাঁদের মমতা ব্যানার্জি উজাড় করে দেওয়ার পরেও তারা বিজেপির সামান্য টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গিয়ে তাঁদের উপর অত্যাচার করছে। আর তাঁর এই মন্তব্যে উত্তাল হয়ে উঠেছিল রাজ্য-রাজনীতি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.