মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের মন্দিরে চুরি, ধৃতের মুখে চুরির কারন শুনে হতবাক পুলিশ

Image source: Google

বিশেষ প্রতিবেদনঃ গত ১৪ ডিসেম্বর মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের মন্দিরে ঘটে চুরির ঘটনা। ঘটনার পরেইথানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরেই সিসিটিভি ফুটেজ দেখে সনাক্ত করা হয় আসল অপরাধীকে। পুরো ঘটনার দায় স্বীকার করে নিয়েছে ধৃত ওই যুবক। তবে কেন হঠাৎ মন্ত্রীর বাড়ির মন্দিরে চুরি করতে গেল যুবক? তার উত্তর পেয়ে চোখ কপালে উঠেছে পুলিশের।

আলিপুরের ৫৬০ বি, ব্লক-এন-এ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের মন্দিরের জানলা ভেঙে রাতের বেলা ১৯ টি সোনার টিপ চুরি করে অভিযুক্ত। এরপরেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। অমিতশংকর মুখোপাধ্যায় নামে এক পুলিশ আধিকারিকের নেতৃত্বে তদন্তে নামে আলিপুর থানার পুলিশ। এর পরেই বেহালার একটি সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে শনাক্ত করে তাঁকে গ্রেফতাঁর করে পুলিশ।

শিবশংকর নামে ওই ধৃত যুবকের বাড়ি দক্ষিন ২৪ পরগনায়। তাঁকে গ্রেফতার করার পরেই তাঁর থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি যাওয়া ১৯ টি সোনার টিপ। তবে তদন্তে নেমেই পুলিশ জানতে পারেন আসল রহস্য। অভিযুক্ত ওই যুবক তাঁর পাড়ায় বেশ ভদ্র ও মার্জিত ব্যক্তি হিসাবেই পরিচিত। এমনকি তাঁর বেশ সুনামও রয়েছে এলাকাতে। এমনকি তাঁর এই চুরি করার বিষয়ে তাঁর স্ত্রীও কিছুই জানেননা। স্ত্রী নাকি বাপের বাড়িতে গেলেই চুরি করত ওই যুবক।

কিন্তু সকলে যেখানে ঠাকুরের মন্দির থেকে গয়না চুরি করতে ভয় পায় সেখানে হঠাৎ করে মন্দিরে ঠাকুরের গয়না চুরি করার সাহস তাঁর কীভাবে হল? এর পেছনে যথাযথ কারনও দেখান ওই অভিযুক্ত ব্যক্তি। তাঁর কথায়, মন্দিরের কোন সম্পত্তি যেহেতু কারোর ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয় তাই মন্দিরে চুরি হলে সেই বিষয়টি খুব একটা থানা পর্যন্ত গড়ায়না। আর তাই তিনি মন্দিরেই চুরি করেন। মন্দিরে চুরির পেছনে অভিযুক্তের এই যুক্তিতে চোখ রীতিমতো কপালে উঠেছে তদন্তকারীদের।

আরও পড়ুনঃ  ভাইফোঁটার পর ঘনিষ্ঠ হল সম্পর্ক, এবার শোভনকে ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা ফারালেন মুখ্যমন্ত্রী

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.