খাস কলকাতার বুকে সন্ধের সময় বাঁশদ্রোণীতে চলল গুলি! গুরুতর জখম এক প্রোমোটার

খাস কলকাতার বুকে সন্ধের সময় বাঁশদ্রোণীতে চলল গুলি! গুরুতর জখম এক প্রোমোটার
খাস কলকাতার বুকে সন্ধের সময় বাঁশদ্রোণীতে চলল গুলি! গুরুতর জখম এক প্রোমোটার / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একেবারে ভরসন্ধে বেলায় কলকাতার বুকে বাঁশদ্রোণীতে চলল গুলি। এক প্রোমোটারকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে। ইতিমধ্যেই গুরুতর আহত ওই প্রোমোটারকে উদ্ধার করে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ এবং অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

জানা গিয়েছে, গুলিবিদ্ধ ওই ব্যক্তির নাম সাধন বণিক। তিনি প্রোমোটিংয়ের ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এবং বাঁশদ্রোনীর সোনালী পার্ক এলাকার বাসিন্দা। এদিন রাতে বাড়ির সামনেই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় কিছু অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতী। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। এরপর গুলির শব্দে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে দেখেন, রাস্তায় পড়ে আছেন সাধন বণিক। দ্রুত তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং খবর দেওয়া হয় বাঁশদ্রোণী থানায়।

প্রাথমিকভাবে পুলিশের তরফ থেকে অনুমান করা হচ্ছে যে, এই ঘটনার পিছনে রয়েছে কুখ্যাত দুষ্কৃতী নান্টির সাগরেদ জনির দলবল। কিন্তু কেন এই খুনের চেষ্টা? জানা গিয়েছে, জনির সঙ্গে সম্প্রতি প্রণয়ের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন সাধন বণিকের স্ত্রী। বর্তমানে সাধন বণিকের স্ত্রী তাঁর সন্তানকে নিয়ে জনির সঙ্গেই নিরঞ্জনপল্লি এলাকায় থাকেন।

আর এই বিষয়কে কেন্দ্র করেই অশান্তি চলছিল। সেই কারণেই এই আক্রমণ বলে মনে করা হচ্ছে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, সম্পর্কের টানাপোড়েন, নাকি সাধন বণিক প্রোমোটিং সংক্রান্ত কোনও বিবাদে জড়িয়ে পড়েছিলেন, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।