৩ সন্তানকে নিয়ে রাস্তায় শুয়ে ছিলেন অসহায় মা! পরিবারের হাতে তুলে দিল পুলিশ

৩ সন্তানকে নিয়ে রাস্তায় শুয়ে ছিলেন অসহায় মা! পরিবারের হাতে তুলে দিল পুলিশ
৩ সন্তানকে নিয়ে রাস্তায় শুয়ে ছিলেন অসহায় মা! পরিবারের হাতে তুলে দিল পুলিশ

পারিবারিক অশান্তির জেরে ৩ সন্তানকে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন অসহায় মা। গভীর রাত পর্যন্ত রাস্তার ধারেই শুয়ে ছিলেন তিনি। অবশেষে পুলিশের নজরে পড়ায় সন্তান সহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হলো তাঁকে। ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়িতে।

নিউ জলপাইগুড়ি থানা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার গভীর রাতে পেট্রোলিং ডিউটির সময় ফুলবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় তিন শিশুসহ ওই মহিলাকে দেখতে পায় পুলিশ। এরপর পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে, ওই মহিলার নাম লক্ষ্মী রায়। শিলিগুড়ির কৃষ্ণনগর কলোনির ইস্টার্ন বাইপাস সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা তিনি। তাঁর স্বামী প্রতিদিন মদ্যপান করে এসে স্ত্রী ও সন্তানদের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতেন। তা সহ্য করতে না পেরেই মঙ্গলবার তিন সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে পড়েন মহিলা।

পুলিশকে মহিলা আরও জানান, তাঁর বাপের বাড়ি কোচবিহারের হলদিবাড়িতে। হাতে বিশেষ টাকাও না থাকায় দূরে কোথাও যেতে পারেননি তিনি। তাই কোলের সন্তানদের নিয়ে রাস্তাতেই শুয়েছিলেন। এই করুণ দৃশ্য নজর কাড়ে পুলিশের। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই খোলসা হয় বিষয়টি। এরপরই মহিলাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন পুলিশ পেট্রোলিং ভ্যানের পুলিশকর্মীরা।

বুধবার মহিলার শ্বশুর বাড়িতে যোগাযোগ করে ননদ রুবি রায়ের কাছে লক্ষ্মী দেবী ও তাঁর সন্তানদের পৌঁছে দিয়ে আসে শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের এনজেপি থানার পুলিশ। ঘরের বউকে ফিরে পেয়ে খুশি পরিবারও। পাশাপাশি পুলিশের এমন মানবিক কাজের প্রশংসাও করেছেন তাঁরা।