‘আমার এত ক্ষমতা নেই’, দিন-রাত ফোনের পর ফোন পেয়ে আক্ষেপ করলেন সোনু সুদের দুধওয়ালা!

'আমার এত ক্ষমতা নেই', দিন-রাত ফোনের পর ফোন পেয়ে আক্ষেপ করলেন সোনু সুদের দুধওয়ালা!
'আমার এত ক্ষমতা নেই', দিন-রাত ফোনের পর ফোন পেয়ে আক্ষেপ করলেন সোনু সুদের দুধওয়ালা!

করোনা আবহে দেশের মানুষের কাছে ত্রাতা রূপে দেখা দিয়েছেন অভিনেতা তথা সমাজসেবক সোনু সুদ৷ গোটা দেশবাসীর কাছে যেন তিনি আজ ‘মসিহা’! মানুষের বিপদে আর কেউ থাকুক না থাকুন, সোনু ঠিক পাশে থাকবেন! যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন সমস্যা সমাধানে। দেশবাসীর মনে এ বিশ্বাসও যেন স্থির হয়ে গেঁথে গিয়েছে।

এসবের মধ্যেই করোনাকালে মানুষের সাহায্যের জন্য স্বেচ্ছাসেবক সংস্থা তৈরি করেছেন সোনু৷ সনু চ্যারিটি ফাউন্ডেশন নামে ওই সংস্থায় সামিল রয়েছেন অভিনেতার দুধওয়ালা গুড্ডুও। জরুরিকালীন অবস্থায় যাতে ফোনে পাওয়া যায় সে জন্য গুড্ডুকে আলাদা একটি ফোনও দেওয়া হয়েছে। আর তাতেই সমস্যায় পড়েছেন ওই দুধওয়ালা। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে সোনুর পোস্ট করা একটি ভিডিওতেই জানা গেল সে বিষয়ে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, গুড্ডুর সঙ্গে কথাবার্তায় ব্যস্ত সোনু। তার মধ্যেই অভিনেতা বলে ওঠেন, মানুষের সাহায্যে দিন-রাত এক করে খেটে যেতে রাজি তিনি। তারপরই গুড্ডুকে প্রশ্ন করেন, মানুষের ফোনের ঠিকমতো উত্তর দিচ্ছেন তো তিনি? তা শুনেই অভিনেতার দুধওয়ালা বলে ওঠেন, “স্যার, সারাদিন ফোনের পর ফোন আসছে। এমনকি মাঝরাতেও রেহাই নেই। আপনার মাথা এত কিছু একসঙ্গে ঠিক নিতে পারে। কিন্তু আমার এত ক্ষমতা নেই। আমি সবকিছু এভাবে নিতেই পারছি না।”

যদিও তারপর সোনু তাঁকে খুব ভালো ভাবে বোঝান। অভিনেতা তাঁকে এও বলেন, “তুমি খুব ভালো কাজ করছ৷ দুধ বিক্রি ছেড়ে আপাতত এই কাজই চালিয়ে যেতে পারো তুমি।” তা শুনে যেন কিছুটা আশস্ত হন ওই দুধওয়ালা। তারপরই দেখা যায় আরেকটি ফোন আসছে তাঁর নম্বরে। তা দেখে সোনু বলেন মানুষটিকে সাহায্য করার কথা। ভবিষ্যতেও যে এভাবেই সাহায্যের কাজ চালিয়ে যেতে চান, একথাও জানিয়েছেন সোনু।