১৬টি বোরো এলাকার কাজের খতিয়ান নিতে বিশেষ দল কমিশনের

১৬টি বোরো এলাকার কাজের খতিয়ান নিতে বিশেষ দল কমিশনের
১৬টি বোরো এলাকার কাজের খতিয়ান নিতে বিশেষ দল কমিশনের

কলকাতা পুরসভার নির্বাচন কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে করানো হবে কিনা সেই নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। যদিও এই বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তবে নিরাপত্তার দিকে আঁটোসাঁটো ব্যবস্থা ইতিমধ্যেই গ্রহণ করা হয়েছে কমিশনের তরফে। প্রত্যেক বোরো এলাকার নির্বাচনী সংক্রান্ত কাজের খবর দেওয়ার জন্য বিশেষ আধিকারিকদের মোতায়েন করেছে কমিশন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, আগামী সপ্তাহে একজন করে নির্বাচনী পর্যবেক্ষক নিয়োগ করা হবে ১৬টি বোরো এলাকার জন্য। সরকারের এক্সিকিউটিভ ম্যানেজার পদের ব্যক্তিদের মূলত এই দায়িত্ব দেওয়া হবে। তাঁদের কাজ হবে প্রতিদিন বিকেল চারটে নাগাদ তাঁদের সংশ্লিষ্ট বোরো এলাকায় নির্বাচন নিয়ে কি কি কাজ হচ্ছে সেই সংক্রান্ত যাবতীয় রিপোর্ট দেওয়া।

অবাধ ও শান্তপূর্ণভাবে ভোট করতে বদ্ধ পরিকর নির্বাচন কমিশন। তাই ইতিমধ্যেই দফায় দফায় বৈঠক করেছে তাঁরা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার অন্যতম নির্বাচনী আধিকারিক পি উলগানাথনের দফতরে বৈঠক সেরেছেন প্রশাসনের কর্তারা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা পুলিশের ৮ জন ডেপুটি কমিশনার পদমর্যাদার আধিকারিকরা।

যদিও এখনও কত পরিমাণ রাজ্য পুলিশ দিয়ে ভোট করানো হবে সেই বিষয়ে কিছু জানায়নি কমিশন। মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সৌরভ দাস জানান, ডিজি ও সিপির সঙ্গে এই বিষয়ে কথা হয়েছে। তাঁরা যাবতীয় তথ্য দিলেই সেই মত পুলিশ মোতায়েনের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে। তবে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে যে পুরভোট হবে না সেই বিষয়টি এক প্রকার স্পস্ট করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।