নির্মম! ভাড়া দিতে না পারায় বাংলাদেশে বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল প্রতিবন্ধী মহিলাকে

নির্মম! ভাড়া দিতে না পারায় বাংলাদেশে বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল প্রতিবন্ধী মহিলাকে / Image Source- Screengrab from Facebook Video Posted By @Asif.Nazrul
নির্মম! ভাড়া দিতে না পারায় বাংলাদেশে বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল প্রতিবন্ধী মহিলাকে / Image Source- Screengrab from Facebook Video Posted By @Asif.Nazrul

নারীদিবসের আগের দিনই ভয়াবহ এক ঘটনার সাক্ষী রইল বাংলাদেশ। ভাড়া দিতে না পারার দরুন চলন্ত বাস থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল এক প্রতিবন্ধী মহিলাকে। । সম্প্রতি নেটমাধ্যমে ভাইরাল হল সেই ভয়ংকর ঘটনার ভিডিও। তারপরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটজনতা।

গত রবিবার, সকাল পৌনে ৯টা নাগাদ বাসটি থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয় সেই মহিলাকে। জানা গিয়েছে, মহিলাটি বাকপ্রতিবন্ধী। অর্থাৎ কথা বলতে পারেন না। ভাড়া দিতে না পারার জন্য বাসের হেল্পার চলন্ত বাস থেকে তাঁকে ঠেলে ফেলে দেয়। মাটিতে পড়ে থাকা অবস্থায় তাঁর গোঙানির শব্দে ছুটে আসেন স্থানীয় লোকজন। তাঁরাই ওই মহিলাকে তুলে শুশ্রূষার বন্দোবস্ত করেন।

স্থানীয় সুত্রে খবর, বাসটির নাম ‘এন মল্লিক’। যা চলে গুলিস্তান-নবাবগঞ্জ রুটে। নম্বর ঢাকা মেট্রো ব-১৩-১৫২১। বাসটির চালক ছিলেন সবুজ মিয়া (৪০)। হেল্পারটির নাম হাসান (২২)। বাড়ি নবাবগঞ্জের জয়কৃষ্ণ এলাকায়।

বাকপ্রতিবন্ধী মহিলাটি এরপর টাইলসের ওপর লিখে অভিযোগ জানিয়েছেন উপস্থিত জনতাকে। তিনি লেখেন, ‘এন মল্লিক কোনাখোলা থেকে উঠাইছে। ভাড়া নাই। এন মল্লিক কোনো দিনও আমার থেকে ভাড়া নেয় না। এরা ভাড়া চায়। দিতে না পারায় এমুন ব্যবহার। এন মল্লিকের সবাই আমাকে চেনে। ও মনে হয় চিনে নাই। তাই বুজাবার চেষ্টা করছিলাম’। এরপরই ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন জনতা। একজন প্রতিবন্ধীর সঙ্গে এমন আচরণে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবীও তুলেছেন তাঁরা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.