মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২

ব্যর্থ বাটলারের লড়াই! ‍‍`কিলার‍‍` মিলারের দাপটে রাজস্থানকে উড়িয়ে IPL ফাইনালে গুজরাট

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: মে ২৫, ২০২২, ১১:৫৮ এএম | আপডেট: মে ২৫, ২০২২, ১১:৫৮ এএম

ব্যর্থ বাটলারের লড়াই! ‍‍`কিলার‍‍` মিলারের দাপটে রাজস্থানকে উড়িয়ে IPL ফাইনালে গুজরাট
ব্যর্থ বাটলারের লড়াই! ‍‍`কিলার‍‍` মিলারের দাপটে রাজস্থানকে উড়িয়ে IPL ফাইনালে গুজরাট

এবার আইপিএলে কিছুতেই থামানো যাচ্ছে না গুজরাট টাইটান্সকে। মাঠে নামলেই একেবারে অপরিরোধ্য হয়ে উঠছে হার্দিক পান্ডিয়ার দল। মঙ্গলবার রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচেও সেই একই ঝলক দেখা গেল। সঞ্জু স্যামসনের দলকে সাত উইকেটে হারিয়ে প্রথমবার আইপিএল খেলতে নেমেই একেবারে ফাইনালে চলে গেল গুজরাট।

মঙ্গলবার অবশ্য শুরুটা ছিল রাজস্থানেরই৷ টস জিতে প্রথমে তাদের ব্যাটিং করতে পাঠান গুজরাট অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া৷ আর এদিন ইডেনে বাটলার ঝড় দেখলেন দর্শকরা। বেশ কিছুদিন ব্যাটে বড় রান না এলেও একেবারে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেই জ্বলে উঠেছিল জস বাটলারের ব্যাট। ইংরেজ সুপারস্টারের ব্যাট থেকে একডজন বাউন্ডারি এবং জোড়া ওভার বাউন্ডারি সহ আসে ৫৬ বলে ৮৯ রানের ঝকঝকে এক ইনিংস।

বাটলার যে মেজাজে খেলছিলেন তিন অঙ্কের রানে ফেরাটা ছিল স্রেফ সময়ের অপেক্ষা! কিন্তু শেষ পর্যন্ত রান আউট হয়ে ফিরতে হয় তাঁকে। বাটলারকে যোগ্য সঙ্গত দেন রাজস্থান অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন (২৬ বলে ৪৭) এবং দেবদূত পাড়িক্কলও (২০ বলে ২৮)। এঁদের ব্যাটিংয়ে ভর করেই কুড়ি ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রান তুলে ফেলে রাজস্থান।

জবাবে গুজরাটের হয়ে ব্যাট করতে নেমে শূন্য রানেই আউট ঋদ্ধিমান সাহা। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে ম্যাথু ওয়েড এবং শুভমন গিল মিলে ৭২ রানের জুটি গড়ে তোলেন। ২১ বলে ৩৫ রান করে ফেরেন শুভমান। ওয়েডও ৩৫ রান করে আউট হন। এরপরই জুটি বেঁধে অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠেন হার্দিক পান্ডিয়া ও ডেভিড মিলার। ১০৬ রানের পার্টনারশিপ গড়েন এই দু‍‍`জন। শুধু তাই নয় ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন।

শুরুতে বাটলার ঝড়ের পর এদিন আবার ‍‍`কিলার মিলার‍‍`-এর দাপট দেখল ইডেন। মাত্র ৩৮ বলে ৬৮ রানের এক অনবদ্য ইনিংস খেলেন তিনি। শুধু তাই নয়, শেষ ওভারে গুজরাটের জেতার জন্য প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। সেখানে রাজস্থানের পেসার প্রসিদ্ধ কৃষ্ণাকে উড়িয়ে দিয়ে শেষ ওভারের প্রথম তিন বলেই তিন ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতিয়ে দেন মিলার৷ তাঁর দাপটে তিন বল বাকি থাকতেই ৩ উইকেটে ১৯১ রান তুলে ফাইনালে চলে যায় গুজরাট।

অন্যদিকে, রাজস্থান হারায় বিফলে যায় বাটলারের লড়াই। তবে মঙ্গলবার ইডেনে হারলেও ফাইনালে ওঠার আশা অবশ্য এখনও রয়েছে রাজস্থানের। তাদের সামনে সুযোগ রয়েছে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার খেলার। বুধবার, এলিমিনেটর ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে লখনউ সুপার জায়ান্টস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। সেই ম্যাচের জয়ী দলের বিরুদ্ধেই দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে খেলবে রাজস্থান। আর সেই ম্যাচ জিতলেই ফাইনালে চলে যাবে সঞ্জু ব্রিগেড।