বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

‍‍`তোমার ব্যাটিং নয়, ৪০ হাজার মানুষ শচীনের শট দেখতে এসেছে‍‍`, সৌরভকে বলেছিলেন ওয়ার্ন

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: মার্চ ৯, ২০২২, ০১:৩০ পিএম | আপডেট: মার্চ ৯, ২০২২, ০২:৩০ পিএম

‍‍`তোমার ব্যাটিং নয়, ৪০ হাজার মানুষ শচীনের শট দেখতে এসেছে‍‍`, সৌরভকে বলেছিলেন ওয়ার্ন
‍‍`তোমার ব্যাটিং নয়, ৪০ হাজার মানুষ শচীনের শট দেখতে এসেছে‍‍`, সৌরভকে বলেছিলেন ওয়ার্ন / ছবি সৌজন্যে : Instagram

শেন ওয়ার্ন (Shane Warne)! বিশ্বক্রিকেটের ইতিহাসে এক কিংবদন্তির নাম! ময়দানে ২২ গজে তিনি ছিলেন স্পিনের রাজা। আর মাঠের বাইরে এক বর্ণময় চরিত্র। শুধু ক্রিকেটার হিসাবেই নয়, তিনি ছিলেন বিশুদ্ধ বিনোদনকারী এক মানুষ। মাঠ হোক বা বাইরে, সব সময় হাসি-ঠাট্টায় ভরিয়ে রাখতেন চারপাশ। তিনি যেখানে থাকতেন সেখানের গুরুগম্ভীর পরিবেশ যেন একনিমেষেই হাওয়া!

তবে আদতে তো তিনি ছিলেন সেই অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারই! তাই বাকিদের মতো স্লেজিংয়ে সিদ্ধহস্ত না হলেও মাঠে মাঝেমধ্যে তাঁকে দেখা যেত বিপক্ষের ক্রিকেটারদের কটাক্ষ করে তাঁদের রাগাতে। আর তাতে সফলও হতেন! ঠিক সেরকম ভাবেই একবার ওয়ার্নের স্লেজিংয়ের মুখে পড়েছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। আর সেই তারপর ওয়ার্নের কাছেই হারিয়ে বসেছিলেন নিজের উইকেট।

সালটা তখন ১৯৯৯। অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে চলছে ভারত–অস্ট্রেলিয়া টেস্ট ম্যাচ। সেসময় ২২ গজে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়  (Sourav Ganguly) ও শচীন তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar)। জুটিতে ততক্ষণে সেঞ্চুরির পার্টনারশিপ উঠে গিয়েছে৷ একসময় সৌরভ তখন স্ট্রাইকিং এন্ডে ওয়ার্নের বলে দারুণ ডিফেন্স করে পা দিয়ে সরিয়ে দিচ্ছেন বল আর শচীন দাঁড়িয়ে নন–স্ট্রাইকিং এন্ডে; তখনই জুটি ভাঙার জন্য স্লেজিং শুরু করেন ওয়ার্ন। সৌরভের উদ্দেশ্যে স্পিন কিং বলে ওঠেন, "পার্টনার, তোমার এই ঠুকঠুক ব্যাটিং আর বলকে লাথি মারা দেখতে মাঠে ৪০ হাজার দর্শক আসেনি। তারা এসেছে শচীনের শট দেখতে।" আর তা শুনেই ফাঁদে পড়ে যান সৌরভ।

ওয়ার্নের স্লেজিংয়ের পালটা জবাব দেওয়ার জন্য এরপর নিজের ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে আসেন মহারাজ। তিনি চেয়েছিলেন ওয়ার্নের বলকে বাউন্ডারি পার করিয়ে ছক্কা হাঁকাতে। কিন্তু তা আর হয়নি! উইকেটের পিছনে থাকা গিলক্রিস্ট দুরন্ত গতিতে স্টাম্পিং করে আউট করেন সৌরভকে। ১৭২ মিনিট ক্রিজে থেকে ৬০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। এরপর ওয়ার্ন শচীনের উইকেটও শিকার করেন। ১৩৩ বলে ৬১ রান করে ফেরেন মাস্টার ব্লাস্টার। ওই ইনিংসে ৯২ রানে ৪ উইকেট পেয়েছিলেন ওয়ার্ন। পরবর্তীতে ম্যাচটিও অস্ট্রেলিয়া জিতে নিয়েছিল ২৮৫ রানে।