বিজেপিতে যোগ দিয়েই শ্রাবন্তীর টুইট, ‘প্রত্যেকের সন্তান যেন বড় হতে পারে সোনার বাংলায়’

বিজেপিতে যোগ দিয়েই শ্রাবন্তীর টুইট, ‘প্রত্যেকের সন্তান যেন বড় হতে পারে সোনার বাংলায়’
বিজেপিতে যোগ দিয়েই শ্রাবন্তীর টুইট, ‘প্রত্যেকের সন্তান যেন বড় হতে পারে সোনার বাংলায়’ / ছবি সৌজন্যে- Instagrammed By @Srabanti.smile

বংনিউজ২৪x৭ডিজিটাল ডেস্কঃ অভিনেতা হিরণ, যশ এবং অভিনেত্রীর পায়েলের পর সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। সোমবার সন্ধের সময়, সাংবাদিক বৈঠক করে অভিনেত্রীর হাতে পদ্মপতাকা তুলে দেন দিলীপ ঘোষ এবং কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

এবার বিজেপিতে যোগ দিয়ে একদিনের মধ্যেই নতুন করে দলের সমর্থনে টুইট করলেন অভিনেত্রী। নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি টুইট করেন তিনি। সেখানে তিনি বলেন যে, প্রত্যেকের সন্তান যেন ‘সোনার বাংলায় বড় হতে পারে।’ তিনি আরও বলেন যে, একজন মা এবং নারী হিসেবে এটাই তাঁর আশা। এর পাশাপাশি সোমবার থেকে তাঁর জীবনের এক নয়া ইনিংস শুরু হয়েছে বলে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানও দেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।

উল্লেখ্য, সোমবার সাংবাদিকদের শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় তাঁর বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে জানিয়েছিলেন যে, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে অনুসরণ করেন। তাঁর কাজে অনুপ্রাণিত হয়েই, তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর পাশাপাশি তিনি কথা প্রসঙ্গে পরোক্ষভাবে আসন্ন বঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছেও প্রকাশ করেছিলেন। শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেছিলেন, বিজেপি যোগদানের মধ্যে দিয়ে, তাঁর জীবনে নতুন পথচলা শুরু হল। তিনি বলেন, এতদিন মানুষ তাঁকে রুপালী পর্দায় দেখেছেন। সকলের কাছের এবং ভালোবাসার মেয়ে হয়ে উঠেছেন। তিনি এও জানিয়েছিলেন যে, রাজনীতিতে এসে তিনি মানুষের জন্য এবার কিছু করতে চান।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রীর প্রসঙ্গে অভিনেত্রীর বক্তব্য ছিল, নরেন্দ্র মোদীর প্রতিটি কথা তাঁর ভালো লাগে। তাই তিনিও তাঁর হাত ধরে, পাশে থেকে দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে চান। তিনি রাজনীতিতে প্রবেশ প্রসঙ্গে আরও জানিয়েছন যে, তাঁর বাবা সেনা অফিসার ছিলেন, তিনি সবসময় শিখিয়েছেন, শুধু রাজ্য নয়, দেশের জন্য কিছু করতে হবে। আর ছোটবেলা থেকে বাবার শিক্ষায় মানুষ হয়েছেন। তিনি তাঁর এই নতুন পথচলার শুরুতে মানুষের সমর্থনও চেয়েছেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে তৃণমূলের সভায় একাধিকবারে দেখা গিয়েছিল শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কে। তাই স্বাভাবিকভাবেই সাংবাদিক বৈঠকে প্রশ্ন ওঠে, তাহলে কি ঘাসফুলের প্রতি তাঁর মোহভঙ্গ ঘটল? এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রীর দাবি, তিনি তৃণমূলে ছিলেন ঠিকই, তবে মোহভঙ্গ হয়নি। দেশ এবং রাজ্যে বিজেপি পরিবর্তন আনছে। এবার সোনার বাংলা গড়ে তোলা হবে। তেমনটাই ছিল তাঁর সোমবারের বক্তব্য দলে যোগ দিয়ে। এবার সেই সোনার বাংলাকে সামনে রেখে আজ উপরিউল্লিখিত নয়া টুইট করেছেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন জুন মালিয়া, কাঞ্চন মল্লিক, মানালি এবং পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। তাই সোমবার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর, তাঁকে রাজ চক্রবর্তীর প্রসঙ্গ টেনে, তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে, নির্বাচনে তিনি কি রাজের বিরুদ্ধে প্রার্থী হবেন। এর উত্তরে অভিনেত্রীর উত্তর ছিল, আজ সবে প্রথম দিন। কার বিরুদ্ধে নির্বাচনে দাঁড়াতে হবে, সেই সিদ্ধান্ত দলের। তিনি শুধু দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে চান। অন্যদিকে, সম্প্রতি একাধিক তারকাও বিজেপিতে যোগদান করেছেন। যা নিয়ে রাজ্য-রাজনীতিতে জোর চর্চা চলছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.