‘দৃপ্ত ভঙ্গিতেই ফিরে আসুন দুজনেই’, সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জন্য আরোগ্য কামনা শ্রীলেখার

'দৃপ্ত ভঙ্গিতেই ফিরে আসুন দুজনেই', সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জন্য আরোগ্য কামনা শ্রীলেখার
'দৃপ্ত ভঙ্গিতেই ফিরে আসুন দুজনেই', সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের জন্য আরোগ্য কামনা শ্রীলেখার

সম্প্রতি সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত হয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তবে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি তাঁকে। বাড়িতেই চিকিৎসা চলছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর। তবে অবস্থা কিছুটা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতালে ভরতি হতে হয়েছে স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্যকে। সম্প্রতি তাঁদের দু’জনের সুস্থতা কামনায় করলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বুদ্ধদেববাবু ও মীরাদেবীর একটি পুরনো ছবিও শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী।

বুধবার নিজের অ্যাকাউন্টে বুদ্ধবাবুর সস্ত্রীক ছবিটি পোস্ট করে শ্রীলেখা লিখেছেন, “এই দৃপ্ত ভঙ্গিতেই ফিরে আসুন দু’জনেই তাড়াতাড়ি।” তার পাশে মুষ্টিবদ্ধ একটি হাতের ইমোজি। উল্লেখ্য, বরাবরই নিজেকে বাম সমর্থক বলে জানিয়ে এসেছেন শ্রীলেখা। সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে সিপিআইএমের হয়ে প্রচারের রব তুলতেও দেখা গিয়েছিল অভিনেত্রীকে। পাশাপাশি দলের বিরুদ্ধে যেকোনও অন্যায়েই তাঁকে দেখা গিয়েছে আওয়াজ তুলতে। এবারও দলের অন্যতম প্রধান মুখ তথা প্রাক্তন নেতৃত্ব বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের অসুস্থতাতেও মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনাও করেছেন।

প্রসঙ্গত, বেশ কয়েকমাস ধরেই বুদ্ধদেববাবুর শারীরিক অবস্থা ভালো ছিল না। একাধিকবার হাসপাতালেও যেতে হয়েছিল তাঁকে। এবার করোনার কঠিন ছোবলের মুখেও পড়লেন তিনি৷ সঙ্গে তাঁর স্ত্রীও। উল্লেখ্য, বুদ্ধবাবুর স্ত্রীর মীরাদেবী হাসপাতালে ভর্তি। তাঁর শরীরে অক্সিজেন মাত্রা মঙ্গলবার ছিল বেশ কম। তবে বুধবার তা অনেকটা ভালো রয়েছে। অ্যান্টিবায়োটিক, স্টেরয়েড এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় ওষুধ খাওয়ানো হচ্ছে তাঁকে।

তবে সিপিআইএম সূত্রে খবর, বুদ্ধদেববাবুর শরীর স্থিতিশীল। অক্সিজেনের মাত্রাও আপাতত ঠিকঠাক। যদিও একাধিক কোমর্বিডিটি থাকায় তাঁকে বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করাতে চাইছে না দল। তবে বুদ্ধদেববাবু হাসপাতালে যেতে রাজি না হওয়ায় বাড়িতেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে যেহেতু দীর্ঘদিন ধরেই সিওপিডির রোগী তিনি, তাই তাঁর স্বাস্থ্যের দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে।