দীপাবলির আগে, মোটা অঙ্কের টাকা রোজগারের সুযোগ! ভাবছেন কীভাবে? রইল বিস্তারিত

দীপাবলির আগে, মোটা অঙ্কের টাকা রোজগারের সুযোগ! ভাবছেন কীভাবে? রইল বিস্তারিত
দীপাবলির আগে, মোটা অঙ্কের টাকা রোজগারের সুযোগ! ভাবছেন কীভাবে? রইল বিস্তারিত

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ উৎসবের মরশুমে বড় সুযোগ অপেক্ষা করছে সকলের জন্য। বিশেষ করে যারা নিজেদের ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী, কিন্তু ভাবছেন কি ব্যবসা শুরু করবেন? কীভাবেই বা শুরু করবেন? অথবা কোন ব্যবসায় বিনিয়োগ করলে, আপনি লাভবান হবেন, তাই তো? এসইব ভাবাটা তো স্বাভাবিক।

তবে দীপাবলির আগে তেমনই একটা সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে তাঁদের জন্য, যারা এইসব ভাবনাচিন্তা করছেন, বা যারা কোনও লাভজনক ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন, যাতে প্রতি মাসের শেষে একটা মোটা টাকা আয় হয়, এবং এমন ব্যবসা, যার চাহিদা কোনও দিনও কমবে না। আর সেইরকম একটি ব্যবসা হল, বিস্কুট তৈরির ব্যবসা। এই ব্যবসায় মোটা টাকা রোজগার হতে পারে মাস শেষে। এদিকে দীপাবলির আর একমাস বাকি, এই সময় যদি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন, তাহলে আপনারই লাভ।

বিস্কুট প্রস্তুতের ব্যবসা
বিস্কুট প্রস্তুতের ব্যবসা

এবার এই ব্যবসার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে বলে নেওয়া যাক। মাত্র ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। যেহেতু বিস্কুটের চাহিদা কখনই কমার নয়, তাই এই ব্যবসায় টাকা-পয়সা খুব একটা অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায় না।

বিস্কুটের ব্যবসা লাভজনক ব্যবসা, এর চাহিদা কখন কম হবে না
বিস্কুটের ব্যবসা লাভজনক ব্যবসা, এর চাহিদা কখন কম হবে না

কেন্দ্রের মুদ্রা প্রকল্পের মাধ্যমে ঋণ পাওয়া সম্ভব, খুব সহজেই। এই ঋণ নিয়ে, কেক, বিস্কুট, চিপস বা পাউরুটি প্রস্তুতের ইউনিট শুরু করতে পারেন। বেকিং ক্যাপিটাল ১.৮৬ লক্ষ টাকার কাঁচামাল ও বেসরকারি কর্মীদের বেতন, ভাড়া ইত্যাদি খরচ এর অন্তর্গত। পাশাপাশি সাড়ে তিন লক্ষ টাকা মেশিনপত্রের খরচ বাবদ লাগবে। প্রাথমিকভাবে ৫.৩৬ লক্ষ টাকা দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর মধ্যে মাত্র ৯০ হাজার টাকা আপনি নিজের থেকে বিনিয়োগ করতে পারেন। বাকি টাকা টার্ম লোন ও ব্যাংকিং ক্যাপিটালের টার্মের মধ্যে পাওয়া যাবে।

কারখানায় তৈরি হচ্ছে বিস্কুট
কারখানায় তৈরি হচ্ছে বিস্কুট

উল্লেখ্য, এক বছরের মত খরচ এমন হতে পারে। প্রস্তুতের খরচ ১৪.২৬ লক্ষ টাকা, টার্ন ওভার ২০.৩৮ লক্ষ টাকা, মোট লাভ ৬.১২ লক্ষ টাকা, ঋণের সুদ ৫০ হাজার টাকা, আয়কর ১৩-১৫ হাজার টাকা, অন্যান্য খরচ পড়বে ৭০-৭৫ হাজার টাকা, আর মোট লাভ ৪.৬০ লক্ষ টাকা, মাসিক আয় ৩৫-৪০ হাজার টাকা৷ আর বছরে আপনি ৩৮ শতাংশ ফেরৎ পেতে পারেন। অর্থাৎ দেড় বছরের মধ্যে আপনি বিনিয়োগের টাকা ফেরত পাবেন। তাহলে, ভাবনা-চিন্তার অবসান ঘটিয়ে নেমে পড়ুন এই সময়ে, আর দীপাবলির আগেই লাভবান হন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.