নির্দিষ্ট প্রয়োজনেই মোদী-মমতা বৈঠকে বসেন কেন, তা একটি রহস্য ! মন্তব্য সুজনের

নির্দিষ্ট প্রয়োজনেই মোদী-মমতা বৈঠকে বসেন কেন, তা একটি রহস্য ! মন্তব্য সুজনের
নির্দিষ্ট প্রয়োজনেই মোদী-মমতা বৈঠকে বসেন কেন, তা একটি রহস্য ! মন্তব্য সুজনের

বরাবর বিজেপির সঙ্গে তৃণমূলের আঁতাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বাম। এবার শিল্প সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানোয় সরাসরি তৃণমূলকে নিশানা করল বাম নেতৃত্ব। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু ও বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী একযোগে কটাক্ষ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এদিন দিল্লীতে মোদির বাসভবনে প্রায় ৩০ মিনিট বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপরেই তাঁকে আগামী এপ্রিলে  রাজ্যে হতে চলেছে বিশ্ব বাংলা শিল্প সম্মেলন। সেখানকার  উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক মতাদর্শগত পার্থক্য থাকতে পারে, তারজন্য কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্কে সংঘাত কাম্য নয়।

এরপরেই এদিনের সাক্ষাৎ নিয়ে কটাক্ষ করেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। বলেন, “মমতা বলেন, রাজনৈতিক মতাদর্শগত পার্থক্য থাকতে পারে, তারজন্য কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্কে সংঘাত কাম্য নয়। বামের বিরুদ্ধে যদি মোদীজি আসেন, তখন পাশে দাঁড়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর যদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বামেদের বিরুদ্ধে দাঁড়ায়, পাশে আসেন মোদীজি। বামেদের কোণঠাসা করাই উদ্দেশ্য দুজনের”।

সুজন চক্রবর্তী বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন তা তো সঙ্গত। কিন্তু যে মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে সচরাচর রাজি থাকেন না, হঠাৎ তাঁরা তাঁরা নির্দিষ্ট প্রয়োজনের সময় একসঙ্গে বসেন কেন, তা একটি রহস্য। ব্যক্তিগত রাজনৈতিক স্বার্থেই মোদীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছেন মমতা”।