১৮ নয় বরং ২১ বছর অবধি নিতে হবে পুত্রের ভরণপোষণের দায়িত্ব! জানাল সুপ্রিম কোর্ট

১৮ নয় বরং ২১ বছর অবধি নিতে হবে পুত্রের ভরণপোষণের দায়িত্ব! জানাল সুপ্রিম কোর্ট
১৮ নয় বরং ২১ বছর অবধি নিতে হবে পুত্রের ভরণপোষণের দায়িত্ব! জানাল সুপ্রিম কোর্ট

আর নয় ১৮! এবার ২১ বছর অবধি নিজের পুত্র সন্তানের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিতে হবে মা-বাবাকে। সম্প্রতি এমন ঘোষণাই করল দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট। গত বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিচারপতি এমআর শাহের বেঞ্চ পারিবারিক আদালতের একটি রায়ের পুনর্বিবেচনা করে এমন সিদ্ধান্তে আসেন। স্নাতক স্তর অবধি পুত্রের সমস্ত দায়িত্ব মা-বাবাকে বহন করতে হবে বলে ঘোষণা করেন তাঁরা।

ঘটনার সূত্রপাত ঘটে, কর্নাটকের এক কর্মচারীকে ঘিরে। তাঁকে ছেলের পড়াশোনার ব্যয় বাবদ ২০ হাজার টাকা দিতে বলে পারিবারিক আদালত। কিন্তু সেটি দিতে অস্বীকার করেন তিনি এবং সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। কোর্টে তিনি জানান, স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভুত সম্পর্কের কারণে ২০০৫ সালের জুন মাসে তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। সেসময় ছেলের ভরণপোষণের দায়িত্ব সম্পর্কে জানতেন না তিনি। তারপর তিনি দ্বিতীয়বার বিয়ে করলে আরও দু-সন্তানের জন্ম হয়। ফলে তাদের দায়িত্বও তাঁর ওপরই। তাই তাঁর পক্ষে ওই পরিমাণ অর্থ দেওয়া সম্ভব নয় বলেও জানান তিনি।

তবে সুপ্রিম কোর্ট তাঁর কথাকে নাকচ করে দেয়। বেঞ্জ জানিয়েছে, এতে প্রথম পক্ষের সন্তানের দায়িত্বও তাঁকেই নিতে হবে। এরপরই পুনর্বিবেচনা করে ২১ বছর অবধি পুত্রের দায়িত্ব নেওয়ার কথা ঘোষণা করে সুপ্রিম কোর্ট। এই প্রসঙ্গে বেঞ্চ জানিয়েছে, ১৮ বছর অবধি ছেলের দায়িত্ব নেওয়াই যথেষ্ট নয়। কারণ, তখনও অবধি কলেজ ডিগ্রি পায় না সে। ফলে চাকরিও পায় না। তাই বয়সের সময়সীমাকে বাড়িয়ে ২১ বছর করা হয়েছে। অর্থাৎ স্নাতক স্তর অবধি ছেলের আর্থিক দায়িত্ব নিতে হবে মা-বাবাকে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.