শনিবার, ২১ মে, ২০২২

‘আমাদের কাছে মানুষই সব’! পেট্রোপণ্যের দাম কমানোর সিদ্ধান্তের পরই ট্যুইট প্রধানমন্ত্রীর

চৈত্রী আদক

প্রকাশিত: মে ২১, ২০২২, ০৯:৫৮ পিএম | আপডেট: মে ২১, ২০২২, ০৯:৫৮ পিএম

‘আমাদের কাছে মানুষই সব’! পেট্রোপণ্যের দাম কমানোর সিদ্ধান্তের পরই ট্যুইট প্রধানমন্ত্রীর
‘আমাদের কাছে মানুষই সব’! পেট্রোপণ্যের দাম কমানোর সিদ্ধান্তের পরই ট্যুইট প্রধানমন্ত্রীর

বংনিউজ২৪×৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ পেট্রোপণ্যের শুল্ক হ্রাসের কথা আজই ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে। এবার এই প্রসঙ্গে ট্যুইট করলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার সন্ধ্যেয় দেশবাসীর উদ্দেশ্যে মোদিজী বলেন, “দেশের সাধারণ মানুষই আমাদের কাছে সবার আগে। আজকের সিদ্ধান্ত, বিশেষ করে পেট্রোল ও ডিজেলের উল্লেখযোগ্য মূল্যহ্রাস বিভিন্ন বিভাগে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। মানুষের দৈনন্দিন জীবনে স্বস্তি আসবে এবং জীবনযাত্রা আরও সহজ হবে।”

প্রসঙ্গত, পেট্রোপণ্যের শুল্কের ওপর এক বিরাট ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করে মোদী সরকার। যার ফলে দেশজুড়ে অনেকটাই দাম কমবে পেট্রোপণ্যের। রবিবার থেকেই কার্যকরী হবে নয়া দাম। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে পেট্রোলের শুল্ক কমানো হয়েছে ৮ টাকা। অন্যদিকে ডিজেলের শুল্ক কমেছে ৬ টাকা। ফলস্বরূপ লিটার প্রতি পেট্রোলের দাম কমবে ৯ টাকা ৫০ পয়সা এবং লিটার প্রতি ডিজেলের দাম কমবে ৭ টাকা করে। এক ধাক্কায় এতটা দাম কমায় স্বস্তি মিলবে দেশবাসীর।

কেন্দ্র জ্বালানির ওপর শুল্ক কমানোর ফলে কলকাতাতেও দাম কমবে পেট্রোল-ডিজেলের। শনিবার কলকাতায় প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম ছিল ১১৫.১২ টাকা ও প্রতি লিটার ডিজেলের দাম ছিল ৯৯.৮৩ টাকা। এদিকে শুল্ক কমায় রবিবার থেকে কলকাতায় পেট্রোলের নয়া দাম দাঁড়াবে লিটার প্রতি ১০৫.৬২ টাকা। অন্যদিকে লিটার প্রতি ডিজেলের দাম হবে ৯২.৮৩ টাকা।

পেট্রোপণ্যের শুল্ক কমানোর পাশাপাশি আরও একটি সুখবর দিয়েছে কেন্দ্র। রান্নার গ্যাসের দামের ক্ষেত্রেও মিলবে স্বস্তি। এদিন অর্থমন্ত্রীর নির্মলা সীতারমন জানান, উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় রান্নার গ্যাসে ভর্তুকির পরিমাণ বাড়ানো হচ্ছে। এবার থেকে সিলিন্ডার প্রতি ২০০ টাকা করে ভর্তুকি পাওয়া যাবে। প্রতি বছরের সর্বোচ্চ ১২ টি সিলিন্ডারে এই পরিমাণ ভর্তুকি মিলবে। এর ফলে উজ্জ্বলা যোজনায় আওতায় থাকা ৯ কোটি গ্রাহক উপকৃত হবেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন মেটার পর থেকেই দেশজুড়ে পেট্রোল-ডিজেল থেকে শুরু করে রান্নার গ্যাস ও বাণিজ্যিক গ্যাসের দাম হু হু করে বেড়েছে। দফায় দফায় বেড়েছে জ্বালানির অন্তঃশুল্ক। যার জেরে মাথায় হাত পড়েছে আমজনতার। এই অবস্থায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বারবার বিক্ষোভ দেখিয়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে বিরোধী দলগুলিও।

প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। গত বুধবার নবান্নে এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “রান্নার গ্যাসের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। পেট্রোল-ডিজেলেরও দাম বেড়ে গিয়েছে। পেট্রোল-ডিজেল থেকে ১৭ লাখ কোটি টাকা মানুষের কাছ খেকে লুঠ করেছে কেন্দ্র। ৮০০ টি ওষুধের দাম বেড়েছে। স্বাস্থ্য থেকে জাতীয় সড়কের টোল ট্যাক্সের দামও বেড়েছে। এই সরকার মানুষ মারার সরকার।”