অন্তর্বর্তী জামিন পেতেই ফের ‘টক টু কেএমসি’ পরিষেবা চালু ফিরহাদের

অন্তর্বর্তী জামিন পেতেই ফের 'টক টু কেএমসি' পরিষেবা চালু ফিরহাদের
অন্তর্বর্তী জামিন পেতেই ফের 'টক টু কেএমসি' পরিষেবা চালু ফিরহাদের

শুধু একটা ফোন। তারপর যেকোনও এলাকার সমস্যা সমাধান করে দেবেন খোদ মেয়র নিজেই। এই পরিকল্পনা নিয়েই বছর দুই আগে শুরু হয়েছিল ‘টক টু মেয়র’ পরিষেবা। এরপর কলকাতা পুরসভার বোর্ড ভেঙে গেলে ‘টক টু কেএমসি’ নামে চলছিল এই পরিষেবা। কিন্তু নারদ কাণ্ডে গ্রেফতারের পর বন্ধ ছিল সেই পরিষেবা। তবে গতকাল অন্তর্বর্তী জামিন মেলার পরেই শনিবার থেকে ফের চালু হচ্ছে সেই পরিষেবা।

আজ দুপুর ১টা থেকে ২টো পর্যন্ত চলবে এই কর্মসূচি। কলকাতা পুরসভার টোল ফ্রি ১৮০০৩৪৫১২১৩ এবং ১৮০০৫৭২১২১৩ নম্বরে ফোন করে জানানো যাবে অভাব অভিযোগের কথা। শহরবাসীর পরিষেবা সংক্রান্ত যাবতীয় কথা সরাসরি ফোনে শুনবেন কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

শুধু সমস্যা বা অভিযোগ জানানো নয়, পরামর্শও দেওয়া যাবে ফোন করে। শহরের ১৪৪টি ওয়ার্ডের সমস্ত বাসিন্দার যে কোনও সমস্যা সরাসরি জানানো যাবে মেয়র ফিরহাদ হাকিমকে। যেকোনও সমস্যায় আর পুরসভার সদর দফতরে ছুটে যেতে হবে না সাধারণ মানুষদের। পুর প্রশাসক অভিযোগ শুনে সঙ্গে সঙ্গেই সামনে বসে থাকা পুর অফিসারদের ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেবেন। সাত দিন পরে অভিযোগের সমাধান হয়েছে কি না তা ওই নাগরিককে ফোন করে জেনে নেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট এলাকার সমস্যার কথা শোনার পাশাপাশি সাধারণ মানুষের আরও কাছাকাছি আসার জন্য আরও বেশি করে ‘টক টু মেয়র’ পরিষেবা চালু করা হয়েছিল। কিন্তু মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ায় বোর্ড ভেঙে যায়। তবে শহরবাসীর পরিষেবার জন্য চালু ছিল এই পরিষেবা। আবার বিধানসভা নির্বাচনের আচরণ বিধি শুরু হতেই এই পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছিল। কিন্তু ফের সেই পরিষেবা চালু হলেও ফিরহাদ হাকিমের গ্রেফতারিতে তা আটকে যায়। কিন্তু গতকাল আদালতের অন্তর্বর্তী জামিনের রায়ে ফের একবার চালু হচ্ছে ‘টক টু কেএমসি’।