WT20: আইপিএলের জন্যই কি ব্যর্থ ভারত? ছিটকে গিয়ে কী অজুহাত দিলেন কোহলিদের বোলিং কোচ?

WT20: আইপিএলের জন্যই কি ব্যর্থ ভারত? ছিটকে গিয়ে কী অজুহাত দিলেন কোহলিদের বোলিং কোচ?
WT20: আইপিএলের জন্যই কি ব্যর্থ ভারত? ছিটকে গিয়ে কী অজুহাত দিলেন কোহলিদের বোলিং কোচ?

শেষরক্ষা হল না! নিউজিল্যান্ড-আফগানিস্তান ম্যাচ ঘিরে আশায় বুক বেঁধেছিলেন ভারতীয় সমর্থকরা। আফগানরা কিউয়িদের হারিয়ে দিতে পারলেই টি-২০ বিশ্বকাপের শেষ চারে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ত ভারতের। কিন্তু তা আর হল কই! রবিবার আফগানিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল নিউজিল্যান্ড। ফলে এবারও অধরা থেকে গেল ভারতের বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন। টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গিয়ে স্বপ্নভঙ্গ হল কোহলি বাহিনীর।

কিন্তু বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে ভারতের মতো হেভিওয়েট দল ব্যর্থ হল কেন? বিদায়লগ্নে এবার মুখ খুললেন ভারতের বোলিং কোচ ভরত অরুণ। কুড়ি ওভারের এই বিশ্বকাপে ভারতের ব্যর্থতার কারণ কী, একে একে ব্যাখ্যা করলেন তিনি। ভরতের মতে, এর জন্য দায়ী আইপিএলই। আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব এবং টি-২০ বিশ্বকাপ, দুই-ই পর পর আয়োজিত হয়েছিল৷ গায়ে গায়ে দু’টি মেগা ইভেন্ট থাকায় কোহলিরা কেউই বিশ্রাম পাননি। ফলে যা হওয়ার তা-ই হয়েছে। একটানা খেলায় মনোযোগ হারিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া।

ভরত অরুণের কথায়, “টানা ছয় মাস বাড়ির বাইরে থাকা বিরাট ব্যাপার। খেলোয়াড়রা কেউই বাড়ি যাননি। আইপিএলের প্রথম পর্বের খেলা স্থগিত হওয়ার পরে দল ব্রেক পেয়েছিল। তারপর আর পায়নি। আমার মনে হয় একটা ছোট বিরতির প্রয়োজন ছিল। টানা ছয় মাস বায়ো বাবলে থাকা বিরাট চাপের। তাই আইপিএল ও টি-২০ বিশ্বকাপের মধ্যে হয়তো আরেকটা ব্রেকের প্রয়োজন ছিল।” পাশাপাশি তাঁর দাবি, “টসও এখানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে। যা পরে বিরাট ব্যবধান গড়ে দিয়েছে। টস ম্যাচের ফলাফল নির্ধারিত করে দেয়। টসের জন্যই প্রথম ও দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ের মধ্যে প্রভাব ফেলেছে। যা ঠিক নয়। অন্যদের একটা অনৈতিক সুবিধা করে দিয়েছে টস।”

প্রসঙ্গত, আগামীকালই নামিবিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেলতে নামবে ভারত। তবে নিউজিল্যান্ড শেষ চারে পৌঁছে যাওয়ায় টুর্নামেন্ট থেকে ইতিমধ্যেই বিদায় ঘটেছে কোহলিদের। সোমবার নামিবিয়ার বিরুদ্ধে জিতলেও কোনও লাভ নেই। তাই ভারতের কাছে এই ম্যাচ শুধুমাত্র নিয়মরক্ষার। জানা গিয়েছে, রবিবার নিউজিল্যান্ড জেতার খবর পেয়েই নিজেদের প্র‍্যাকটিস বাতিল করে দেয় ভারতীয় দল। বিনা প্র‍্যাকটিসেই সোমবার শেষ ম্যাচ খেলতে নামবে ভারত। আর জিতলেও একরাশ হতাশা নিয়েই দেশে ফিরবেন কোহলি ব্রিগেড।