মাস্ক না পরলে ফাইন হাজার টাকা! আরও কড়াকড়ি নিয়ম হল এই রাজ্যে

মাস্ক না পরলে ফাইন হাজার টাকা! আরও কড়াকড়ি নিয়ম হল এই রাজ্যে
মাস্ক না পরলে ফাইন হাজার টাকা! আরও কড়াকড়ি নিয়ম হল এই রাজ্যে / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এককথায় ভয়ানক! ক্রমশ চূড়ান্ত আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করছে করোনা। ভয়াবহতার সব মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে মারণ করোনা। দেশব্যাপী করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল সাধারণ মানুষ থেকে প্রশাসনের।

অথচ এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও বেশিরভাগ মানুষের মুখে নেই মাস্ক, সঠিকভাবে মানা হচ্ছে না সামাজিক দুরত্ববিধিও। জনবহুল স্থানে মানুষ মাস্ক ছাড়াই দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এবার এই পরিস্থিতি ঠেকাতে নেওয়া হচ্ছে কড়া ব্যবস্থা। ফাইন দিতে তৈরি থাকুন, যারা করোনাবিধি লঙ্ঘন করছেন। তাও আবার দুশো-পাঁচশো নয়, একেবারে কড়কড়ে হাজার টাকা দিতে হবে ফাইন হিসেব, মাস্ক না পরলে। এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে তেলেঙ্গানা সরকার।

মুখ্যসচিব সোমেশ কুমার প্রত্যেক জেলাশাসকের কাছে এই মর্মে নির্দেশিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন। একইসঙ্গে কমিশনার ও সুপারিন্টেন্ডেন্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কড়া হাতে এই নিয়ম কার্যকর করার জন্য।

গতকালই এই নির্দেশিকা ইস্যু করেছে তেলেঙ্গানা সরকার। এর সেই সময় রাজ্যে সর্বাধিক দৈনিক সংক্রমণের রেকর্ড তৈরি হয়েছে। উল্লেখ্য, গত সাতাশে মার্চ রাজ্য সরকার একটি নির্দেশিকা জারি করেছিল। যেখানে সব পাবলিক প্লেসে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক বলে উল্লেখ্য করা হয়। মাস্ক বাধ্যতামূলক করতে বলা হয় সব কর্মস্থলে এবং যানবাহনে যাতায়াতের সময়। বাড়ন্ত করোনো সংক্রমণ বাগে আনতে এই নিয়ম জারি করে তেলেঙ্গানা সরকার।

এই নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছিল যে, নিয়ম লঙ্ঘন করলে দু’হাজার পাঁচ সালের বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের ৫১ ও ৬০ ধারা এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারা মোতাবেক কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে নিয়ম লঙ্ঘনকারীর বিরুদ্ধে। তবে নির্দেশিকা থাকলেও, তেমন কড়া ব্যবস্থা কার্যকর হতে দেখা যায়নি।

যদিও পুলিশের বক্তব্য ছিল, কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আগে তারা সচেতনতা তৈরি করেছেন। গত সপ্তাহেই মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও ঘোষণা করেছিলেন যে, মাস্ক না পরলে, এক হাজার টাকা ফাইন নেওয়া হবে, এবং নির্দেশ কড়াভাবে কার্যকর করতে পুলিশ-প্রশাসনকে নির্দেশ দেন তিনি। একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী আবেদন করেন, করোনা সংক্রান্ত সব ধরনের নিয়ম মেনে চলার পাশাপাশি মাস্ক পরার জন্য। করোনা আটকাতে প্রত্যেকে সচেতন হতে আবেদন জানান তিনি।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.