মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২

শীতের পথে বাধা! বড়দিনের আগেই কমল শহরের তাপমাত্রা, নতুন বছরের শুরুতেও কি থাকবে একই অবস্থা?

০৯:২৯ এএম, ডিসেম্বর ২২, ২০২১

শীতের পথে বাধা! বড়দিনের আগেই কমল শহরের তাপমাত্রা, নতুন বছরের শুরুতেও কি থাকবে একই অবস্থা?

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেরিতে এলেও ভালই খেল দেখাচ্ছিল শিতবাবাজি। উত্তুরে হাওয়ার দাপটে ক্রমশ বাড়ছিল ঠাণ্ডা। লেপ- কম্বল-সোয়েটারও বেরিয়ে পড়েছিল। শীত প্রেমী মানুষ বেশ খানিকটা স্বস্তি পেয়েছিল একঘেয়ে বৃষ্টি এবং নিম্নচাপের হাত থেকে। কিন্তু এরই মাঝে ফের দুঃসংবাদ শীত পাগল মানুষের জন্য। আবারও শীতের পথে বাধা। গত সপ্তাহে টানা তাপমাত্রা কমার পড়, এদিন একধাক্কায় ২ ডিগ্রি বাড়ল তাপমাত্রা। তবে, তাপমাত্রা বাড়লেও, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে অনেকটাই কমে হওয়ায় সকাল থেকেই দিব্যি শীতের আমেজ বজায় রয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ১৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। এদিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৯১ শতাংশ।

হাওয়া অফিস জানাচ্ছে ফের তাপমাত্রার পারদ চড়বে, তাও বড়দিনের আগেই। এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ডিসেম্বরের মাঝামাঝি শীতের দখা মিললেও উত্তুরে হাওয়ার দাপটে ঝোড় ইনিংস খেলছিল শীত। কিন্তু এবার বড়দিন এবং নিউ ইয়ারে এই শীতসুখ স্থায়ী হবে না। হাওয়া অফিসের মতে আবারও বাড়তে শুরু করবে তাপমাত্রা। কাজেই বড়দিনের আগেই আবহাওয়ার বদল ঘটবে।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে যে, আগামী দু'দিন তাপমাত্রার পারদ নামবে। কাজেই ঠান্ডা উপভোগ করতে পারবেন রাজ্যবাসী। কিন্তু,রাজ্যে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে প্রবেশ করা ঠান্ডা হাওয়া বাধাপ্রাপ্ত হবে। এর জেরে বাড়বে কলকাতা তথা রাজ্যের সমস্ত জেলার তাপমাত্রা। বড়দিনের আগেই রাজ্য়ে হাওয়া বদলের পূর্বাভাস ফিয়েছে হাওয়া অফিস। এদিকে সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সোমবার ছিল মরশুমের শীতলতম দিন।

নতুন বছরের শুরুতে তাহলে কি জাঁকিয়ে শীত অনুভব করতে পারবে না রাজ্যবাসী? এই প্রশ্নের উত্তরে হাওয়া অফিস জানাচ্ছে যে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা কেটে গেলে ফের উত্তুরে হওয়া বিনা বাধায় ঢুকবে রাজ্যে। তখন আবার তাপমাত্রার পারদ নামতে থাকবে।

উল্লেখ্য, চলতি মরশুমে অনেক দেরি করে রাজ্যে ঠান্ডা পড়েছে। এমনিতে অন্যান্য বছরে পৌষের শুরু থেকেই শীত পড়ে। কিন্তু এবারে তাঁর ব্যতিক্রম হয়েছিল নিম্নচাপ এবং উত্তুরে হাওয়া প্রবেশে বাধার কারণে। তবে, অবশেষে সব বাধা কাটিয়ে শীত প্রবেশ করেছিল রাজ্যে।

কিন্তু, আবারও ছন্দপতন। যদিও নতুন বছরে ফের জাঁকিয়ে শীত পড়বে বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদদের একাংশ। তাঁদের কথায়, উত্তুরে হাওয়ার উপর ভর করে ফের রাজ্যে পড়বে শীত। বুধবারও তাপমাত্রা বাড়লেও, শীতের আমেজ থাকবে কলকাতা জুড়ে।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে যে, সকালের দিকে শহরের আকাশ থাকবে কুয়াশায় ঢাকা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দৃশ্যমানতা বাড়বে। পশ্চিমের জেলাগুলিতে শৈত্যপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। পুরুলিয়া, পূর্ব-পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব-পশ্চিম বর্ধমানের তাপমাত্রা এক থেকে দুই ডিগ্রি কমতে পারে। তবে ৪৮ ঘণ্টা পর এই জেলাগুলিতেও বাড়বে তাপমাত্রার পারদ।