করোনা মোকাবিলায় বিশেষ প্যাকেজের ঘোষণা কেন্দ্রের

করোনা মোকাবিলায় বিশেষ প্যাকেজের ঘোষণা কেন্দ্রের
করোনা মোকাবিলায় বিশেষ প্যাকেজের ঘোষণা কেন্দ্রের

মারণ ভাইরাসের সাথে মোকাবিলায় নয়া পদক্ষেপ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। জরুরি ভিত্তিতে ২৩ হাজার কোটি টাকার বিশেষ প্যাকেজের ঘোষনা করল কেন্দ্র। পাশাপাশি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে মান্ডির মাধ্যমে সরাসরি ১ লক্ষ কোটি টাকা পৌঁছে দেওয়ার কথাও জানানো হল।করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলে উঠতে না উঠতেই দেশজুড়ে চোখ রাঙাচ্ছে আসন্ন তৃতীয় ঢেউ। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের এই ঘোষণা লাভ জনক বলে মনে করা হচ্ছে।

মোদীর মন্ত্রীসভা সম্প্রসারণে রদবদল হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীরও। সেই পদে আসীন হয়েছেন মনসুখ মাণ্ডবিয়া। আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘করোনার তৃতীয় ঢেউ-এর কথা মাথায় রেখে ২০,০০০ আইসিইউ বেড তৈরি করা হবে। এইজন্যই জরুরি ভিত্তিতে এই ২৩ হাজার ১২৩ কোটি টাকার বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। এবার থেকে দেশে করোনার সংক্রমণের বিষয় কেন্দ্রীয় ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হবে। এই প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে যাতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লে মুহূর্তে ৫০০০ শয্যা ও ২৫০০ আইসিইউ তৈরি করা যায়।’ পাশাপাশি প্রতিটি জেলায় ১০ হাজার তরল অক্সিজেনের প্ল্যান্ট বসানোর কথাও এদিন জানান কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

বুধবারই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার সম্প্রসারণ হয়েছে। এরপরই ভার্চুয়াল আলোচনায় বসে এই বর্ধিত মন্ত্রিসভা। সেখানেই করোনা মোকাবিলায় বিশেষ প্যাকেজের ঘোষণা করা হয়। পাশাপাশি কৃষকদের জন্যও বড় ঘোষণা করা হয় এদিন।

নতুন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জানান, ‘মোদী সরকারের উদ্দেশ্যে হল মান্ডির উন্নতির মাধ্যমে যাতে কৃষকদের উন্নয়ন হয়’। নয়া কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার বলেন, ‘দেশে বিশাল সংখ্যক চাষি নারকেল উত্‍পাদনের সঙ্গে জড়িত। ভারতে তাই নারকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছিল ১৯৮১ সালে। সরকার এই বোর্ডের দায়িত্ব আরও বাড়াতে চায়, এবার একজন চাষিকে এই বোর্ডের দায়িত্বে দেওয়া হবে।’