‘ইয়াস’ বিধ্বস্ত প্লাবিত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী! একনজরে দেখে নিন তার সফরসূচী

‘ইয়াস’ বিধ্বস্ত প্লাবিত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী! একনজরে দেখে নিন তার সফরসূচী
‘ইয়াস’ বিধ্বস্ত প্লাবিত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী! একনজরে দেখে নিন তার সফরসূচী

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ করোনা পরিস্থিতি মাঝেই রাজ্যে এসে হাজির হয়েছে আরও এক বিপর্যয় শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। পূর্বাভাস অনুযায়ী ইতিমধ্যেই ‘ইয়াস’ এর ল্যান্ডফল শুরু হয়েছে। প্রায় সকাল ৯.১৫ থেকে বালেশ্বরের ধামরা বন্দরের কাছে আছড়ে প়ড়তে শুরু করেছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। তবে বাংলায় ‘ইয়াসের’ ল্যান্ডফল না হলেও বাংলার উপকূলবর্তী এলাকায় সমুদ্রের প্রবল জলোচ্ছ্বাসের কারণে জল ঢুকছে সমুদ্র তীরবর্তী এলাকাগুলিতে, এমনকি ভেঙে গিয়েছে একাধিক নদী বাঁধও। প্লাবিত হয়েছে বহু গ্রাম। আর এই ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলি আগামী শুক্রবার আকাশপথে পরিদর্শন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শনের কথা জানান রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এই সফরে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন মুখ্যসচিব সহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা৷ এই সফরসূচীর বিষয়ে মুখ্যসচিব জানান, আগামী ২৮ মে শুক্রবার কলকাতা থেকে হেলিকপ্টার করে প্রথমে উত্তর চব্বিশ পরগণার হিঙ্গলগঞ্জ এলাকা পরিদর্শন করবেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তারপর সেখানকার ক্ষয়ক্ষতির খতিয়ান নেওয়া থেকে শুরু করে কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় পুনর্বাসন ও ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হবে সেসব বিষয়ে সন্দেশখালির ধামাখালিতে রিভিউ মিটিং করবেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তারপর দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার সাগর পরিদর্শন করে সেখানেও ক্ষয়ক্ষতি ইত্যাদি সংক্রান্ত বিষয়ে প্রশাসনিক বৈঠক করবেন তিনি৷ এবং সবশেষে সেখান থেকে যাবেন দিঘায়৷ ২৯ তারিখ শনিবার দিঘাতে প্রশাসনিক বৈঠক করে কলকাতায় ফিরবেন মুখ্যমন্ত্রী৷

অন্যদিকে আজ নবান্ন থেকে ‘ইয়াস’ এর ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘ইয়াস’ এর জেরে রাজ্যে প্রায় ১ কোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে বলে জানান৷ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে প্রায় কয়েক লক্ষ বাড়ির৷ এমনকি নোনা জল ঢুকে প্রচুর কৃষি জমি নষ্ট হয়েছে বলেও আশঙ্কাও করা হচ্ছে৷ তবে মুখ্যমন্ত্রী জানান অন্তত ৭২ ঘণ্টা সময় লাগবে সম্পূর্ণ ক্ষয়ক্ষতির হিসেব পেতে।