পনের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা! অভিযোগ স্বামীসহ পরিবারের বিরুদ্ধে

পনের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা! অভিযোগ স্বামীসহ পরিবারের বিরুদ্ধে
পনের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা! অভিযোগ স্বামীসহ পরিবারের বিরুদ্ধে / নিজস্ব ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ মালদাঃ পনের টাকা না দেওয়ায় স্ত্রীকে শিলনোড়া দিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা স্বামীসহ পরিবারের। ঘটনাটি ঘটেছে গাজোল থানার ছিটকা মহল এলাকায়। আহত স্ত্রী বন্দনা সরকার (২২) মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের ছয় মাসের এক শিশু কন্যাও রয়েছে।

জানা যায়, পেশায় লেবার রাজকুমার সরকার তার স্ত্রীকে বাপের বাড়ি থেকে ৫০০০ টাকা নিয়ে আসতে চাপ দেয়। সেই টাকা না নিয়ে আসতে পারায় এর আগেও তাকে মারধর করা হয়। এমনকি আগুনে পুড়িয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা চালাই বলে স্ত্রীর অভিযোগ। প্রসঙ্গত গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার রাত্রি ৯টা নাগাদ সেই টাকা না নিয়ে আসায় চরম বচসা বাধে, তাকে প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা করে। তারপর না পারায় শিলনোড়া দিয়ে মাথায় আঘাত করে মারার চেষ্টা চালায়। কোনোক্রমে সেখান থেকে পালিয়ে বাঁচে গৃহবধূ।

স্থানীয়রা এই ঘটনার খবর পেতেই সেখান থেকে আহত বন্দনাকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করে। উল্লেখ্য বন্দনার বাপের বাড়ি বৈষ্ণবনগর থানার সুকদেবপুর এলাকায়। এই ঘটনার পরই বন্দনার বাপের বাড়ির পক্ষ থেকে অভিযুক্ত স্বামী রাজকুমার সরকার ও শ্বশুর-শাশুড়ির বিরুদ্ধে গাজোল থানায় অভিযোগ করা হয়। পুরো ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.