শিশুদের মাস্ক পড়ার প্রয়োজনীয়তা সংক্রান্ত বিষয়ে জারি হল নয়া করোনা গাইডলাইন! দেখে নিন একনজরে

শিশুদের মাস্ক পড়ার প্রয়োজনীয়তা সংক্রান্ত বিষয়ে জারি হল নয়া করোনা গাইডলাইন! দেখে নিন একনজরে
শিশুদের মাস্ক পড়ার প্রয়োজনীয়তা সংক্রান্ত বিষয়ে জারি হল নয়া করোনা গাইডলাইন! দেখে নিন একনজরে / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ দেশব্যাপী কড়া বিধিনিষেধ এবং জায়গায় জায়গায় লকডাউনের কারণে ক্রমশ কমছিল দেশের করোনার গ্রাফ। বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই নিম্নমুখী ছিল দেশে করোনার সংক্রমণ। মৃতের সংখ্যাও কমের দিকেই ছিল। তবে, এদিন সংক্রমণের সংখ্যা কিছুটা বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে মৃতের সংখ্যা।

একদিনে দেশে মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ১৪৮ জনের। এর সঙ্গে সঙ্গে দৈনিক মৃতের সংখ্যার নিরিখে নয়া রেকর্ড গড়ল ভারত। দেশে বেশ কয়েকদিন মৃতের সংখ্যা ছিল ৩ হাজারের কাছাকাছি। তাই হঠাৎ করে করোনায় মৃতের সংখ্যার এই বৃদ্ধি অবিশ্বাস্য। যদিও আচমকা মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য দায়ী বিহার সরকার। আজই বিহার সরকারের পক্ষ থেকে মৃতদের তালিকা সংশোধন করা হয়েছে। সেখানে নতুন তালিকায় মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ৭২ শতাংশ। আর এরই মাঝে শিশুদের মাস্ক পড়ার প্রয়োজনীয়তা সহ একাধিক বিষয়ে জারি হল নয়া করোনা গাইডলাইন। রইলো বিস্তারিত..

প্রসঙ্গত করোনার সাথে লড়াই করতে পূর্বেই সরকার করোনা গাইডলাইন জারি করেছিলেন। তবে এবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অধীনস্ত ডিরেক্টর জেনারেল অফ হেলথ সার্ভিস(DGHS) এর পক্ষ থেকে জারি করা হল নয়া করোনা গাইডলাইন। এই গাইডলাইনে শিশুদের মাস্ক পড়ার বয়সসীমা ও ১৮ বছর অনুর্ধ্ব করোনা রোগীদের চিকিৎসা সম্পর্কিত বিষয়ে জানানো হয়।

উল্লেখ্য গাইডলাইন অনুযায়ী, ৫ বছর অনুর্দ্ধ শিশুদের মাস্ক পড়ার ক্ষেত্রে কোন বাধ্যতা নেই। অন্যদিকে ৬ থেকে ১১ বছর বয়সীরা চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী মাস্ক পরতে পারবে বলে জানা গেছে। শিশুদের করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে গাইডলাইনে রেমডিসিভিরের ব্যবহার করার কথা বলা হয়নি। গাইডলাইন অনুযায়ী, ১৮ অনুর্ধ্বদের করোনার অল্প এবং মাঝারি উপসর্গ থাকলে সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সঠিক মাত্রায় স্টেরয়েড নিতে হবে।