পাশবিক! পোষা খরগোশকে কামড়ানোর বদলা নিতে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারা হলো কুকুরছানাকে

পাশবিক! পোষা খরগোশকে কামড়ানোর বদলা নিতে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারা হলো কুকুরছানাকে
পাশবিক! পোষা খরগোশকে কামড়ানোর বদলা নিতে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারা হলো কুকুরছানাকে / নিজস্ব ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ নদিয়াঃ মলয় দেঃ একটি কুকুরের বাচ্চাকে লোহার রড দিয়ে নৃশংস ভাবে পিটিয়ে মাড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো শান্তিপুরে। অভিযোগ বুধবার আনুমানিক সন্ধ্যে ছটা নাগাদ শান্তিপুর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত ভাঙ্গি পাড়া এলাকায় অমিত দত্ত নামে একযুবক রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো একটি কুকুরের বাচ্চাকে লোহার রড দিয়ে নিশংস ভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলে। এর কারণ হিসেবে জানা গেছে ওই ব্যক্তির পোষা খরগোশকে কামড়েছিল ওই বাচ্চা কুকুরটি। আর সেকারণেই বদলা নিতে কুকুর বাচ্চাকে নৃশংস ভাবে হত্যা করে ওই যুবক।

এপ্রসঙ্গে এলাকাবাসী জানায়, এই ঘটনা জানাজানি হতেই এলাকার মানুষজনেরা প্রতিবাদ করলে ওই ব্যাক্তি উল্টে হুমকি, এবং তার স্ত্রীর শ্লীলতাহানীর মিথ্যা অভিযোগ করে শান্তিপুর থানায়। এরপর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শান্তিপুরের বেশকিছু পশুপ্রেমী ও সমাজসেবী সংগঠনের সদস্যরা, তারাও প্রতিবাদ করলে তাদের কেউ হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। আর এর পরেই গর্জে ওঠে সমস্ত শান্তিপুরের পশুপ্রেমী মহল।

দীর্ঘদিন খাঁচায় আটকে চারটি খরগোশ পোষা আইন বিরুদ্ধ কিনা সে বিষয়টি বনদপ্তর এর উচ্চ পর্যায়ের আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এলাকার তরফ থেকে একটি মার্চ পিটিশন করে শান্তিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে তারা। এবিষয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়া পশুপ্রেমীরা জানান, পুরো বিষয়টি শান্তিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক এর সাথে আলোচনা করা হয় তিনি পুরো ঘটনার তদন্ত করবেন বলে জানান। এছাড়া নৃশংস ভাবে হত্যাকারী অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করবেন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে ওই এলাকায় যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়ায়।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.