মানবিকতার নজির! মহামারীর মধ্যেও অসহায় যাত্রীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই অটোচালক

মানবিকতার নজির! মহামারীর মধ্যেও অসহায় যাত্রীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই অটোচালক / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই
মানবিকতার নজির! মহামারীর মধ্যেও অসহায় যাত্রীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দিচ্ছেন এই অটোচালক / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই

কোভিড আতঙ্কে কার্যত জেরবার গোটা দেশ। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে অসহায় পরিস্থিতিতে পড়ছেন সাধারণ মানুষও। বিশেষ করে যারা কোভিড আক্রান্ত, তাঁদের পরিবারের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয়। এই পরিস্থিতিতে তাঁদের পাশে এসে দাঁড়ালেন রাঁচির এক অটোচালক। যিনি এই কঠিন সময়ে অসহায় যাত্রীদের বিনামূল্যে পৌঁছে দিচ্ছেন হাসপাতালে।

সংবাদ সংস্থা এএনয়াই মারফত জানা গিয়েছে, অটোচালকটির নাম রবি আগরওয়াল। গত সপ্তাহ থেকে তিনি এই পরিষেবা চালু করেছেন। এই প্রসঙ্গে সংবাদ সংস্থাটিকে তিনি জানিয়েছেন, গত ১৫ এপ্রিল এক অসুস্থ মহিলা যাত্রী রাজেন্দ্র মেডিকেল সায়েন্সেস ইনস্টিটিউট (রিমস)-এ যাওয়ার জন্য অটো ভাড়া করতে এসেছিলেন। তবে মারাত্মক ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় কোনও অটোচালকই তাঁকে সাহায্য করতে রাজি হননি। এই অবস্থায় মহিলাটিকে সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছিলেন রবি। এরপর বিনামূল্যে সেই অসুস্থ মহিলাকে হাসপাতালে পৌঁছে দেন তিনি।

সেদিনের পর থেকেই নিজের অটোতে করে সাহায্যপ্রার্থী যাত্রীদের বিনামূল্যে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন রাঁচির ওই অটোচালকটি। তিনি একথাও জানিয়েছেন, যার যখনই প্রয়োজন, তাঁর পাশে দাঁড়াতে তিনি রাজি। প্রত্যেক সাহায্যপ্রার্থীকেই বিনামূল্যে হাসপাতালে পৌঁছে দেবেন তিনি। এই মর্মে নিজের অটোর সামনে নিজের মোবাইল নম্বর সহ ‘ফ্রি ইমার্জেন্সি সার্ভিসেস’ বলে একটি প্রচার পত্রও লাগিয়েছেন রবি। যাতে যেকোনও জরুরি পরিস্থিতিতে মানুষ তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।

অটোচালক রবির এই কাহিনী সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ্যে আসা মাত্রই নেটিজেনদের নজর কাড়ে তা। এই কঠিন সময়ে সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার জন্য অটোচালকটিকে ধন্য ধন্য করছেন প্রত্যেকেই। অনেকে এও মন্তব্য করেছেন, মানবিক এই প্রচেষ্টার জন্য অটোচালকটি সত্যিই শ্রদ্ধার ঊর্ধ্বে। এই তাঁদের মতো মানুষগুলি রয়েছেন বলেই আজও বেঁচে রয়েছে মনুষ্যত্ব।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.