শুধু সিনেমাতে নয় সত্যই নিজের আঙুল কেটে রক্ত দিয়ে ডিম্পলের সিঁথিতে সিঁদুর দিয়েছিলেন বিক্রম বাত্রা

শুধু সিনেমাতে নয় সত্যই নিজের আঙুল কেটে রক্ত দিয়ে ডিম্পলের সিঁথিতে সিঁদুর দিয়েছিলেন বিক্রম বাত্রা
শুধু সিনেমাতে নয় সত্যই নিজের আঙুল কেটে রক্ত দিয়ে ডিম্পলের সিঁথিতে সিঁদুর দিয়েছিলেন বিক্রম বাত্রা

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ দেশের জন্য শহীদ হচ্ছেন এমন জওয়ানের উদাহরণ রয়েছে লক্ষ লক্ষ। শহীদ দের সকলেই শ্রদ্ধা জানান, সম্মানিত করেন। কিন্তু এই দেশপ্রেম, গুলি গালাচ, মৃত্যু এই সব বাদ দিয়েও তাদের একটি পরিবার থাকে। মা, বাবা, ভাই, বোন স্ত্রী বা বাগদত্তা। আর এই পরিবার গুলিতেই লুকিয়ে থাকে সুক্ষ সুক্ষ কাহিনী। আসলে সিনেমার গল্প বাস্তব হয় নাকি বাস্তবের গল্প নিয়ে সিনেমা তৈরি হয়? এই নিয়ে রয়েছে দন্দ্ব। সিনেমা দেখে শিখি নাকি আমাদের জীবন দেখে তৈরি হয় সিনেমা।

এমনই এক বাস্তব ঘটনা নিয়ে তৈরি হয়েছে শেরশাহ। চলতি বছর ১৫ ই অগাস্ট অনলাইন প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায় এই সিনেমা। কার্গিল যুদ্ধে শহিদ ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রার জীবন কাহিনী নিয়েই তৈরি এই সিনেমা। সিনেমার প্রত্যেকটি অংশে একটি আর্মির জীবনী তুলে ধরা হয়েছে। দেশের প্রতি একজন জওয়ানের প্রেম, শত্রুর প্রতি রাগ, যে কোনও যুদ্ধে হাসি মুখে ঝাঁপিয়ে পড়ার সাহস ইত্যাদি এই ছবির কিঞ্চিতে কিঞ্চিতে।

আবার দেখানো হয়েছে এক রগচটা রাগি আর্মির প্রেমিক মন। সেও প্রেমে পড়ে, বিয়ের স্বপ্ন দেখে। এই সিনেমায় বিক্রম বাত্রার বাগদত্তা ডিম্পল চিমার চরিত্রে অভিনয় করেছেন কিয়ারা। কিয়ারা এই ছবিতে ফুটিয়ে তুলেছেন ডিম্পলের প্রতিটি আবেগ, একজন আর্মির স্ত্রী হওয়ার সাহস। সিনেমায় একটি দৃশ্য আছে যেখানে সিদ্ধার্থ ওরফে বিক্রম বাত্রা নিজের হাত কেটে ডিম্পল এর মাথায় সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছে। না এটা গল্প নয় আসল জীবনীতেও বিক্রম বাত্রা ডিম্পলের মাথায় এই ভাবেই সিঁদুর পরিয়ে দিয়েছিলেন। তাই শতবার বলা সত্ত্বেও আজও অন্য কাওকে বিয়ে করেন নি ডিম্পল। বিক্রম বাত্রার স্মৃতি নিয়েই কাটাতে চান বাকি জীবন।