তুষার-শুভেন্দু বৈঠক নিয়ে এবার রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হচ্ছে তৃণমূল

তুষার-শুভেন্দু বৈঠক নিয়ে এবার রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হচ্ছে তৃণমূল
তুষার-শুভেন্দু বৈঠক নিয়ে এবার রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হচ্ছে তৃণমূল

প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়ার পর এবার তুষার-শুভেন্দু বৈঠক নিয়ে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হতে চলেছে তৃণমূল। আগামী সপ্তাহেই রাইসিনা হিলস যাচ্ছে তৃণমূলের সংসদীয় দল, এমনটাই খবর সূত্রের। এদিকে এই নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী কে চিঠি দিয়েছে তৃণমূল। সোমবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ রাষ্ট্রপতি ভবনে দেখা করতে যাবে তৃণমূল। এমনটাই জানিয়েছেন তৃণমূলের মুখপাত্র তথা রাজ্য সভার সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়।

তুষার-শুভেন্দু বৈঠককে হাতিয়ার করে সলিসিটর জেনারেলের অপসারণের দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিল তৃণমূল। যদিও এরপরই তুষার মেহেতা দাবি করেন, শুভেন্দু বাড়িতে এসেছিলে ঠিকই, কিন্তু তার সঙ্গে কোন বৈঠক হয়নি। কারণ সেই সময় তিনি অন্য বৈঠকে ব্যস্ত ছিলেন। সলিসিটর জেনারেল আরও জানিয়েছেন, তাঁর আপ্তসহায়ক শুভেন্দুকে অপেক্ষা করতে বলেন। কিন্তু কোনও বৈঠক হয়নি। এর জন্য শুভেন্দুর কাছে দুঃখপ্রকাশও করেন তুষার মেহেতা। প্রসঙ্গত, এদিন বিধানসভাতেও শুভেন্দুকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, বৈঠক হয়নি বলেই তিনি দাবি করেন।

এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ ট্যুইট করে লেখেন, ‘নারদে সিবিআইয়ের মামলায় এফআইআরে নাম থাকা শুভেন্দু অধিকারী সিবিআই আইনজীবী এসজি তুষার মেটার সঙ্গে দেখা করার পর তদন্ত ও মামলা প্রভাবিত হতে পারে। অবিলম্বে প্রভাবশালী শুভেন্দুর গ্রেফতার চাই।’

শুভেন্দু অধিকারী বৈঠকের কথা অস্বীকার করলে পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রশ্ন তোলেন, ‘শুভেন্দু অধিকারী তো নিজেকে বাঘ মনে করেন। উনি হঠাৎ বিড়াল হয়ে গেলেন কেন? তাহলে কি গতকাল মেহেতার বাড়িতে বিড়াল গিয়েছিল?’ এবার তুষার মেহেতার অপসারণের দাবিতে রাষ্ট্রপতি দ্বারস্থ হতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আগামী সপ্তাহে রাষ্ট্রপতির কাছে যাচ্ছে তৃণমূলের একটি প্রতিনিধিদল।