একই পরিবারের তিন সদস্যের রহস্যমৃত্যু! নিউ মার্কেটের হোটেল থেকে উদ্ধার মৃতদেহ

একই পরিবারের তিন সদস্যের রহস্যমৃত্যু! নিউ মার্কেটের হোটেল থেকে উদ্ধার মৃতদেহ
একই পরিবারের তিন সদস্যের রহস্যমৃত্যু! নিউ মার্কেটের হোটেল থেকে উদ্ধার মৃতদেহ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ কলকাতার নিউ মার্কেটের এক হোটেল থেকে উদ্ধার হল একই পরিবারের তিন সদস্যের মৃতদেহ! তাঁরা শিলিগুড়ির বাসিন্দা বলে পুলিশ সূত্রে খবর। হোটেলের ঘর থেকে একটি সুইসাইড নোটও পাওয়া গেছে, পাওয়া গিয়েছে বিষের শিশিও। এই ঘটনায় তদন্তে নেমেছে নিউ মার্কেট থানার পুলিশ।

১৭, রফি আহমেদ কিদোয়াই রোডের একটি হোটেলে সোমবার দুপুর দেড়টা নাগাদ এসে ওঠেন শিলিগুড়ির তিন বাসিন্দা। মৃত তিনজনের নাম সুশীল বনশাল, ছন্দাদেবী বনশাল এবং সুনীত বনশাল। মৃত সুশীল কুমার বনশাল পেশায় একজন ব্যবসায়ী। জানা গিয়েছে, ওই দিন রাতেই হোটেলে খাবার হিসেবে তাঁরা রুটি এবং চানা অর্ডার করেন। খাবার নিয়ে সাড়ে নটা নাগাদ ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন। এরপর মঙ্গলবার অনেক বেলা পর্যন্ত কেউ ঘর থেকে না বেরনোয়, হোটেল কর্মীদের সন্দেহ হয়। ডাকাডাকি করেও কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি, পাশাপাশি রেজিস্টারে দেওয়া মোবাইল নম্বরে বারংবার ফোন করেও কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। এরপরই হোটেল থেকে খবর দেওয়া হয় নিউ মার্কেট থানায়।

এরপর পুলিশ ওই হোটেলে উপস্থিত হলে, পুলিশের উপস্থিতিতে হোটেলের দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকেন হোটেল কর্মীরা। ব্যবসায়ী সুশীল বনশাল তাঁর স্ত্রী ছন্দাদেবী বনশাল এবং তাঁদের ছেলে সুনীত বনশালের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। পাশে পাওয়া যায় বিষের শিশি এবং সুইসাইড নোটও।

পুলিশ সূত্রে খবর, উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোটে আত্মহত্যার কথা উল্লেখ্য করেছেন তাঁরা। জানা গিয়েছে, বনশাল পরিবারের ব্যাগের ব্যবসা ছিল। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, সম্ভবত আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত কোনও ঘটনা থেকে এই চরম সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওই তিনজন। তদন্ত শুরু হয়েছে। সবদিক ভালো করে খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সবরকম সম্ভবনার দিকেই নজর দেওয়া হচ্ছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত সুশীল বনশালের বয়স ৬৬ বছর, ছন্দাদেবী ৬০ বছরের এবং তাঁদের ছেলে সুনীত সিংয়ের বয়স ৪৫ বছর। এদিকে ইতিমধ্যেই তাঁদের মৃত্যুর খবর পাঠানো হয়েছে শিলিগুড়িতে তাঁদের বাড়িতে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.