চুল সেট করতে গরিলা-গ্লু স্প্রে করলেন জনপ্রিয় টিকটক স্টার! এরপর যাচ্ছেতাই কাণ্ড! দেখুন viral ভিডিও

চুল সেট করতে গরিলা-গ্লু স্প্রে করলেন জনপ্রিয় টিকটক স্টার! এরপর যাচ্ছেতাই কাণ্ড! দেখুন viral ভিডিও / Image Source: Screengrab from Video Instagrammed By @im_d_ollady
চুল সেট করতে গরিলা-গ্লু স্প্রে করলেন জনপ্রিয় টিকটক স্টার! এরপর যাচ্ছেতাই কাণ্ড! দেখুন viral ভিডিও / Image Source: Screengrab from Video Instagrammed By @im_d_ollady

হেয়ার স্প্রে শেষ। তাই ভরসা রাখলেন গরিলা গ্লু স্প্রেতে। চুল সেট করতে তাই স্প্রে করলেন জনপ্রিয় টিকটিক স্টার টেসিকা ব্রাউন! ঠিক তারপরই ঘটল এক যাচ্ছেতাই কাণ্ড। আঠায় চুল আটকে এমনই শক্ত হয়ে গিয়েছে যে তা আর স্বাভাবিকই হচ্ছে না। ঠিক যেরকমভাবে টেনে বেঁধে চুল সেট করা হয়েছিল, ঠিক সেরকমই থেকে গিয়েছে। এমনকি ১৫ বার শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধোয়ার পরও ঠিক হয়নি তা। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের এমনই এক ভিডিও আপলোড করলেন টিকটক স্টার নিজেই।

গরিলা গ্লু এমনই এক আঠা প্রস্তুতকারক সংস্থা, যে আঠা পাথর, কাঠ ইত্যাদি জোড়ার কাজে ব্যবহৃত হয়। এই আঠা বহুদিন তথা বছরের পর বছর স্থায়ী হয়। এবং অত্যন্ত মজবুতও। তাই একমাত্র কোনও কিছু স্থায়ী ভাবে জোড়ার কাজেই ব্যবহার করা হয় এই আঠা। তা চামড়া, চোখ এবং শরীরের জন্য অতীব ক্ষতিকারকও বটে। প্রস্তুতকারক সংস্থা থেকে এ কথা আগেই সাবধান করে দেওয়া হয়েছিল। যদিও সেখানে চুলের ক্ষেত্রে ঠিক সমস্যা হতে পারে, তা পরিস্কার করে বলা হয়নি।

সেখানেই ভুল করে ফেললেন টেসিকা। তিনি ভেবেছিলেন গরিলা-গ্লু স্প্রে করলে চুল হয়তো বেশিক্ষণ সেট হয়ে থাকবে। উসকোখুসকো হয়ে যাবে না। তাই ভরসা করেই চুলে লাগিয়েছিলেন এই স্প্রে। ঠিক তারপরই ঘটল বিপত্তি! বহুক্ষণ পরেও স্বাভাবিক হয়নি তার চুল। বারবার চুল ধোয়া এবং শ্যাম্পু ব্যবহার করেও কোনও লাভ হয়নি। যেমন ভাবে এক দিকে সিঁথি করে বিনুনি বেঁধে চুল সেট করেছিলেন টেসিকা, ঠিক তেমনই থেকে গিয়েছে। তা নিয়ে রীতিমতো ভেঙে পড়েছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গেই তা ভাইরাল হয়ে ওঠে। প্রথমে এটিকে সাধারণ ‘পাবলিসিটি স্টান্ট’ ভাবলেও, পরে টেসিকার কথা এবং প্রতিক্রিয়ায় ভুল ভাঙে নেটিজেনদের। নিজের চুল আবার আগের মতো স্বাভাবিক ভাবে ফিরে পেতে চান তিনি। তার জন্য দর্শকদের কাছে সমাধানও চান। রীতিমতো কান্না চাপতে চাপতেই কথাগুলি বলেন টেসিকা। এরপর নেটিজেনরাও বেশ চিন্তিত হয়ে পড়ে।

বেশ কিছু চিকিৎসক এবং ত্বক বিশেষজ্ঞ টেসিকাকে পরামর্শও দেন অ্যাসিটোন বা রাবিং অ্যালকোহল জাতীয় কিছু ব্যবহার করতে। দরকারে ডার্মাটোলজিস্টের সাহায্য নেওয়ার কথাও জানান তারা। গরিলা-গ্লু সংস্থাটিও সমবেদনা জানায়। পরামর্শ শুনে নিজের চুলগুলি স্বাভাবিক ভাবে ফিরে পেতে টেসিকাও যথা সম্ভব চেষ্টা চালিয়ে চলেছেন। তবে গরিলা-গ্লুর নামে কেসও করতে চান তিনি। টেসিকা কি আদৌ কোনওদিন তার চুলগুলি স্বাভাবিক ভাবে ফিরে পাবে? নাকি তাকে এভাবেই কাটাতে হবে বাকি জীবন? সে প্রশ্নের উত্তর তো সময়ই দেবে…

আরো পড়ুনঃ   নারী দিবসের আগেই নেটদুনিয়ায় ভাইরাল এই বিজ্ঞাপন! যা আপনার চোখে জল আনবেই!