করোনায় কড়া কমিশন! বাকি তিন দফাতেও কমলো প্রচারের সময়

করোনায় কড়া কমিশন! বাকি তিন দফাতেও কমলো প্রচারের সময়
করোনায় কড়া কমিশন! বাকি তিন দফাতেও কমলো প্রচারের সময়

চতুর্থ দফার ভোটে শীতলকুচি ঘটনায় কি পরিমান হিংসা ছড়িয়েছে তার থেকে সতর্ক হয়েছে নির্বাচন কমিশন। জানানো হয়েছিল পঞ্চম দফার ভোটের তিন দিন অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টা আগে বন্ধ করতে হবে। সেই পথে হেঁটে এবার বাকি তিন দফা অর্থাৎ ষষ্ঠ সপ্তম এবং অষ্টম দফার ভোটে ৭২ ঘণ্টা আগেই প্রচার বন্ধ করার নির্দেশ দিল কমিশন।

কমিশনের তরফে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে, ষষ্ঠ সপ্তম এবং অষ্টম দফার ভোট এর ক্ষেত্রে ৭২ ঘণ্টা আগেই বন্ধ করতে হবে প্রচার। পাশাপাশি প্রতিদিন সন্ধ্যে সাতটা থেকে পরের দিন সকাল ১০টা পর্যন্ত করা যাবে না কোনো রকম নির্বাচনী প্রচার।

রাজ্যে যে হারে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তাতে করোনা বিধি মেনে প্রচার কাজ চালানো এখন নির্বাচন কমিশনের কাছে কার্যত চ্যালেঞ্জ। এদিন সর্বদলীয় বৈঠকে প্রচারে করোনা বিধি মানার কথা বলা হলেও প্রচার সম্পূর্ণ বন্ধ করার কথা কিছু বলা হয়নি। তবে রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন কমিশন এই বিষয়ে যা সিদ্ধান্ত নেবে তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করবেন তারা।

এদিনের বৈঠক শেষে তৃণমূলের তরফে বাকি তিন দফা অর্থাৎ ষষ্ঠ সপ্তম এবং ষষ্ঠ দফার ভোট একসঙ্গে করার দাবি জানানো হয়েছিল। কিন্তু গতকালই দিল্লির নির্বাচন কমিশন জানিয়ে দিয়েছেন পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ভোট হবে অর্থাৎ তিন দফার ভোট কোনমতেই একদফায় করানো যাবে না। এর পরেই এদিনের বৈঠকের শেষে নির্দেশিকা দিয়ে কমিশন জানিয়েছে সভা মিছিল রোড শো করা যাবে না সন্ধ্যে সাতটা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত।