রুদ্রনীলের ব্যানার ছেঁড়া নিয়ে উত্তপ্ত চেতলা! সংঘর্ষ তৃণমূল-বিজেপির

রুদ্রনীলের ব্যানার ছেঁড়া নিয়ে উত্তপ্ত চেতলা! সংঘর্ষ তৃণমূল-বিজেপির
রুদ্রনীলের ব্যানার ছেঁড়া নিয়ে উত্তপ্ত চেতলা! সংঘর্ষ তৃণমূল-বিজেপির

ভোটের মুখে এবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল দক্ষিণ কলকাতার চেতলা। অভিযোগ, গতরাতে বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ যখন প্রচার সেরে ফিরছিলেন তখনই তার ওপর এবং তার কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলা চালানো হয়। অভিযোগের তীর তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের দিকে।

বিজেপির অভিযোগ, রাত আটটা নাগাদ রুদ্রনীলের ব্যানার-ফেস্টুন ছেঁড়া হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের। এরপরে অভিযোগ জানাতে থানায় যাওয়ার পথে তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে তাদের। মুহূর্তেই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় চেতলা। ঘটনার জেরে পাল্টা রাস্তা অবরোধ করে তৃণমূল।

রুদ্রনীল জানান, “টিএমসির সমর্থকরা হামলা চালায়। প্রায় দু আড়াইশো জন ছিলেন, তাঁরা এলাকাবাসীদের হুমকি দেয় এখানে বিজেপি করা হলে মা বোনদের ধর্ষণ করে দেওয়া হবে। ছেলেপুলেদের খুন করে দেওয়া হবে। আজ কোনমতে দৌড়ে পালিয়ে প্রাণে বেঁচেছেন এখানকার বিজেপি সমর্থকরা।” তাঁর সমর্থকদের মধ্যে ১৫ জন জখম হয়েছেন বলেও জানান তিনি। রুদ্রনীল ঘোষ তার অভিযোগে আরও জানিয়েছেন ,তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের হাতে আগ্নেয় অস্ত্র এবং বোমা ছিল।

অন্যদিকে তৃণমূলের তরফে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। তৃণমূলের পরিষদীয় মন্ত্রী তাপস রায় জানান, বিজেপির অভিযোগ এবং নালিশের পার্টি হয়ে গেছে। জয় পরাজয় সুনিশ্চিত জেনেই ওরা লাগাতার প্রয়োজনে দিচ্ছে। শান্ত বাংলাকে অশান্ত করছে। চেতলার ঘটনা তারই প্রতিফলন”।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.