সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের পাশে থাকতে দিল্লিতে অভিষেক! যোগ দিলেন ধর্নায়

সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের পাশে থাকতে দিল্লিতে অভিষেক! যোগ দিলেন ধর্নায়
সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের পাশে থাকতে দিল্লিতে অভিষেক! যোগ দিলেন ধর্নায়

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ প্রথমেই সাংসদদের সাসপেনশনের তীব্র বিরোধিতা করেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। স্পষ্টভাবে জানিয়েছিলেন, সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের পাশেই আছেন। এর সেই পাশে থাকার বার্তা নিয়ে এবার সরাসরি দিল্লিতে পৌঁছালেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের সঙ্গে বসলেন ধর্নায়।

সংসদে তৃণমূল কংগ্রেসের রণকৌশল ঠিক কী হবে, কীভাবেই বা বিজেপি বিরোধিতা করা হবে? ঘাসফুল শিবির-এইসব নিয়ে আলোচনা করতে মঙ্গলবারই দিল্লি পৌঁছেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লি পৌঁছে, বিমানবন্দর থেকে সোজা যান ধর্নাস্থলে। গান্ধীমূর্তির পাদদেশে সাসপেন্ড হওয়া সাংসদদের সঙ্গে বসেন ধরনাতেও। দলীয় সূত্রে খবর, দলীয় সাংসদদের মনোবল বৃদ্ধি করতেই এদিন ধরনায় যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। ধরনাস্থলে ছিলেন শান্তা ছেত্রী, দোলা সেন, শান্তনু সেন, অপরূপা পোদ্দাররাও।

উল্লেখ্য, সংসদের বাদল অধিবেশনে সংসদের শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে চলতি শীতকালীন আধিবেশন থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন তৃণমূলের শান্তা ছেত্রী, দোলা সেন-সহ মোট ১২ সাংসদ। সেই সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে লাগাতার ধরনায় তৃণমূল সাংসদরা।

এবার এই ধর্নায় যোগ দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এই যোগদান দলীয় সাংসদের মনোবল বাড়াবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। জোড়াফুল শিবিরের দাবি, ‘সাংসদদের সাসপেনশনের তীব্র নিন্দা করছি। এভাবে বিজেপি আমাদের চুপ করাতে থামাতে পারবে না।’