বিশেষ লক্ষ্যে ত্রিপুরায় সুজাতা-জয়া! বিপ্লব দেবের সরকারকে উৎখাতের ডাক দিলেন সুজাতা

বিশেষ লক্ষ্যে ত্রিপুরায় সুজাতা-জয়া! বিপ্লব দেবের সরকারকে উৎখাতের ডাক দিলেন সুজাতা
বিশেষ লক্ষ্যে ত্রিপুরায় সুজাতা-জয়া! বিপ্লব দেবের সরকারকে উৎখাতের ডাক দিলেন সুজাতা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এবার ত্রিপুরায় জয়ার সঙ্গী সুজাতা মণ্ডল। ত্রিপুরার তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের উপর হামলা হয়েছে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের নির্দেশেই। এমন অভিযোগ সম্প্রতি করেছিলেন ঘাসফুল শিবিরের নেত্রী সুজাতা মণ্ডল। ত্রিপুরায় না গিয়েই, এমন মন্তব্য করেছিলেন তিনি। আর এবার তাঁকেই সরাসরি ত্রিপুরায় পাঠাল দলীয় নেতৃত্ব।

এদিকে আগরতলায় পা রেখেই, বিজেপিকে সাম্প্রদায়িক দল বলে অভিযোগ তুলে, বিপ্লব দেবের সরকারকে উৎখাতের ডাক দিলেন সুজাতা। এর পাশাপাশি ত্রিপুরায় মহিলা ভোটকে পাখির চোখ করে, সুজাতা, জয়াদের মুখকেই বিজেপিশাসিত রাজ্যে ব্যবহার করতে চাইছে এ রাজ্যের শাসক দল।

উল্লেখ্য, সুজাতা মণ্ডল এই মুহূর্তে তৃণমূলের ভরসাময় মহিলা মুখ। তৃণমূলের এই ভরসা মুখই এবার আগরতলায় দাঁড়িয়ে বললেন, ‘সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাবাজ বিপ্লব দেবের সরকারকে উৎখাত করতে। বাংলায় যেভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এখানেও মা-মাটি-মানুষের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। জয় বাংলার মতো এখানেও স্লোগান উঠবে জয় ত্রিপুরা। বিপ্লব দেবের সরকারের আমলে ত্রিপুরার মানুষ বঞ্চিত, অত্যাচারিত।’

অন্যদিকে, তৃণমূল যে শুধু ভোটেই লড়বে তাই নয়, পাশাপাশি ত্রিপুরা দখলের প্রস্তুতিও নিচ্ছে, তাও তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘আমাদের একটাই লক্ষ্য, সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাবাজ বিজেপি সরকারকে উৎখাত করা। আমাদের যেভাবে অত্যাচার করা হচ্ছে, তাতে আমরা ভয় পাব না। আমাদের যদি এতই গুরুত্ব না দেয় বিজেপি, তাহলে এত আক্রমণ কেন? আমরা বিজেপিকে ভয় পাইনি। আমরা সাংগঠনিক দিক থেকে তৈরি হয়ে গেছি। ২০২৩-এ ত্রিপুরায় সরকার গড়ছে তৃণমূলই। ত্রিপুরার মা-বোনেদের আশীর্বাদ নিয়ে তৃণমূলই সরকার গড়ছে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগেই ত্রিপুরার মাটিতে আক্রান্ত হয়েছেন তৃণমূল যুব নেত্রী জয়া দত্ত। আক্রান্ত হওয়ার পর, ফের একবার ত্রিপুরায় সুজাতার সঙ্গী হলেন জয়া দত্ত। ত্রিপুরায় পা দিয়ে বললেন, ‘বারবার আসা যাওয়া চলতে থাকবে আমাদের। কেউ আটকাতে পারবে না আমাদের। জানি আবার মামলা করবে আমাদের বিরুদ্ধে। কিন্তু তাতে কিছু যায় আসে না আমাদের। যতই আমাদের উপর পরিকল্পিত অত্যাচার করুক, ত্রিপুরায় আমাদের আটকানো যাবে না।’