বিজেপির ইস্তেহার ভাওতাবাজি! একযোগে কটাক্ষ বাম, তৃণমূলের

বিজেপির ইস্তেহার ভাওতাবাজি! একযোগে কটাক্ষ বাম, তৃণমূলের
বিজেপির ইস্তেহার ভাওতাবাজি! একযোগে কটাক্ষ বাম, তৃণমূলের

বিজেপির ইস্তেহার ভাওতাবাজি। গেরুয়া শিবিরের ইস্তেহারকে একযোগে আক্রমণ করল তৃণমূল ও বাম শিবির। পাশাপাশি তৃণমূল আরও দাবি করে তাদের নকল করেই বিজেপি ইস্তেহার প্রকাশ করেছে।

এদিন ইজেডসিসিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশ করেছে। সেখানে মহিলাদের একগুচ্ছ সুবিধে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। পাশাপাশি ভূমিহীন কৃষকদের তিন লক্ষ টাকার বীমা করে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন অমিত শাহ। একইসঙ্গে পুরোহিত ভাতার ঘোষণা করেছেন। ক্ষমতায় এলে পাঁচ টাকায় তিন বেলা পেট পুরে খাওয়ার কথাও জানান তিনি।

এর পরেই তোপ দেগেছে তৃণমূলের বর্ষিয়ান সাংসদ সৌগত রায়। তিনি বলেন, “এদের ইস্তাহারে তেমন কিছু নেই। যা আছে জুমলা। আগের ইস্তাহারের প্রতিশ্রুতিই পূরণ করতে পারেনি। বিজেপির সবটাই জুমলা, ওঁদের বিশ্বাস করার কোনও কারণ নেই। আমাদের সব অনুকরণ করছে।” সৌগত বাবু কটাক্ষ করে বলেন, “পুরোহিতদের জন্য পুরোহিত কল্যাণ করবে। আমরা তো আগে থেকেই পুরোহিতদের জন্য আর্থিক সাহায্য চালু করেছি। তৃণমূলের মা কিচেনের অনুকরণে অন্নপূর্ণা কিচেনের কথা বলছে। “

সৌগত বাবুর প্রশ্ন, “মেয়েদের নিয়ে নানান কথা বলছে। অথচ, অসম উত্তরপ্রদেশে মহিলাদের সুরক্ষার কী অবস্থা?”

এদিন বিজেপিকে তোপ দেগেছে বাম শিবিরও। বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “ইস্তাহারে প্রলোভিত করতে গিয়ে রাজ্যবাসীর কাছে ঝুড়ি ঝুড়ি মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।সবকিছুর দাম দ্বিগুণ করে দিয়ে এখন অনেক কিছু বিনামূল্যে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে। বাংলার মানুষ এই প্রলোভনে পা দেবে না।বিদ্যুতের মাশুল, পেট্রল-ডিজেল বা গ্যাসের দাম কমানো নিয়ে বিজেপির ইস্তাহারে একটি কথাও বলা হয়নি।”

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.