টার্গেট ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন! রদবদল দলীয় সংবিধানে, সর্বভারতীয় স্তরে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল

টার্গেট ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন! রদবদল দলীয় সংবিধানে, সর্বভারতীয় স্তরে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল
টার্গেট ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন! রদবদল দলীয় সংবিধানে, সর্বভারতীয় স্তরে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তৃণমূল

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সম্প্রতি শেষ হওয়া বিধানসভা নির্বাচনে গোটা দেশকে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পথ দেখিয়েছে বাংলা। সামনেই রয়েছে ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনেও দেশকে পথ দেখাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। সোমবার কালীঘাটে তৃণমূল ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক শেষে এমনটাই জানালেন দলের মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন।

তৃণমূল কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক শেষে দলের মুখপাত্র ডেরেক ওব্রায়েন বলেন, আজকের বৈঠকে বাংলা ছাড়াও ছিলেন বিহার, হরিয়ানা, গোয়া, উত্তর পূর্ব ভারতের নেতারা। বাংলার বাইরে অন্যান্য রাজ্যে দলের বিস্তারের পরিকল্পনা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর এর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। জানা গিয়েছে, পরের ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং হবে দিল্লিতে।

তৃণমূল সাংসদ আরও বলেন, ২০১৫ সালে থেকে তৃণমূল কংগ্রেস একটি সর্বভারতীয় দল। সবর্ভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি হয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়। দল যেখানে অন্যান্য রাজ্যেও বিস্তার করছে সেখানে দলের রণনীতিও অন্যরকম হবে। তাই অল ইন্ডিয়া তৃণমূল কংগ্রেসের সংবিধানে বদল হবে। তৃণমূলের চরিত্রের বদল হচ্ছে না। শুধুমাত্র দলের সংবিধানে বদল হবে। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে দলের শীর্ষ নেতাদের বক্তব্যে স্পষ্ট, যেভাবে মে মাসে মমতার নেতৃত্বে দেশকে পথ দেখিয়েছে বাংলা, তেমনি ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও দেশকে পথ দেখাবে মমতার নেতৃত্বাধীন বাংলা। বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্য়াই সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যক্তিত্ব।

এই মুহূর্তে তৃণমূল ওয়ার্কিং কমিটিতে রয়েছেন ২১ সদস্য। জানা গিয়েছে, বাংলার বাইরে থেকেও কমিটিতে কয়েকজনকে নেওয়া হবে। এমনটাই জানিয়েছেন ডেরেক। তিনি আরও বলেন, দলের ৬-৭ নেতা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতেই থাকবে দলের ভার। তাঁর নেতৃত্বে মুগ্ধ দলের শীর্ষ নেতারা। মমতার নেতৃত্বেই লড়াই চলবে। তাঁর নেতৃত্বেই অন্য়ান্য রাজ্যে লড়াই চালিয়ে যাব তৃণমূল কংগ্রেস।

আজকের বৈঠক শেষ হওয়ার পরে, সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া পবন বর্মা বলেন, ‘সর্বভারতীয় স্তরে দলের বিস্তারে যা প্রয়োজন, তা করার দায়িত্ব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দেওয়া হয়েছে। দেশে আজ যে পরিস্থিতি তাতে স্পষ্ট বিজেপির  বিরুদ্ধে দেশব্যাপী আন্দোলন প্রয়োজন। আর সেই সেই লড়াই লড়তে পারে তৃণমূল কংগ্রেসই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব সেই লড়াই হবে। তার জন্য যা করতে হয় তা করবে দল।’