করোনার বিধিনিষেধ এড়াতে সেতুর মাঝে দাঁড়িয়েই বিয়ে সারলেন এই নবদম্পতি! ছবি দেখে হতবাক নেটজনতা

করোনার বিধিনিষেধ এড়াতে সেতুর মাঝে দাঁড়িয়েই বিয়ে সারলেন এই নবদম্পতি! ছবি দেখে হতবাক নেটজনতা / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই
করোনার বিধিনিষেধ এড়াতে সেতুর মাঝে দাঁড়িয়েই বিয়ে সারলেন এই নবদম্পতি! ছবি দেখে হতবাক নেটজনতা / ছবি সৌজন্যেঃ এএনআই

করোনা মোকাবিলায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তেই জারি রয়েছে আংশিক বা কার্যত লকডাউন। ব্যতিক্রম নয় তামিলনাড়ু ও কেরালাও। সেখানেও জারি কড়া বিধিনিষেধ। বিশেষ করে জমায়েত করে কোনও অনুষ্ঠান করার ক্ষেত্রে রয়েছে কড়া নিষেধাজ্ঞা। তবে এর মধ্যেই চলছে বিয়ের মরশুম। তাই কোভিড বিধি এড়িয়ে বিয়ে সারতে অভিনব এক পন্থা নিলেন সেখানের এক যুগল। কেরল এবং তামিলনাড়ুর সংযোগকারী একটি ব্রিজের মাঝে দাঁড়িয়েই বিয়ে সারলেন তাঁরা।

সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, সম্প্রতি তামিলনাড়ুর দিন্দিগুলের বাতলাগুণ্ডুর বাসিন্দা থাঙ্গামাইলের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় কেরলের মারায়ুর ইদুক্কির উন্নিকৃষ্ণনের। কিন্তু করোনার মধ্যে এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যেতে গেলে করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট থাকা বাঞ্ছনীয়। এ ক্ষেত্রে দুই পরিবারের নিমন্ত্রিত সদস্যদের করোনা পরীক্ষা করাতে গেলে বিপুল পরিমাণ অর্থ খরচ হতো। পাশাপাশি সময়ও নষ্ট হয়। সেসব এড়াতেই অন্য এক উপায় বের করেন ওই যুগল। দুই রাজ্যের সংযোগকারী এক ব্রিজের ওপরের বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা৷

এখানে উল্লেখ্য, কেরল এবং তামিলনাড়ু এই দুই রাজ্যের মাঝে রয়েছে চিন্নার নদী। সেই নদীর ওপরেই তৈরি ওই ব্রিজ। বর্তমানে যেখানে বিয়ে সারতে অধিকাংশ দম্পতির পছন্দের এক স্থান হয়ে উঠেছে সেটি। গত বছর থেকেই এই ব্রিজে বহু দম্পতি বিয়ে সেরেছেন। এতে কোভিড বিধিও মানা হল, আবার বিয়েও সারা হল। তাই নিজেদের বিয়ের জন্যও ওই ব্রিজই বেছে নিয়েছিলেন থাঙ্গামাইল ও উন্নিকৃষ্ণন।

অবশেষে প্রশাসনের কাছে বর কনে নিজেদের কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট জমা দিতেই মেলে বিয়ের অনুমতি। প্রশাসনের আধিকারিকদের উপস্থিতিতেই ব্রিজের মাঝে দাঁড়িয়ে বিয়ে সারেন ওই নবদম্পতি। সেখানে ছিলেন না কোনও পুরোহিত। দুই বাড়ির সদস্যও ব্রিজের দুই প্রান্তে দাঁড়িয়ে বিয়েতে সামিল ছিলেন। অভিনব এই বিয়ের ছবি ইতিমধ্যেই বেশ ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। নেটিজেনরাও বেশ হতবাক তা দেখে। অবশ্য নবদম্পতিকে প্রাণভরে আশীর্বাদ করে তাঁদের আগামী জীবনের প্রতি শুভকামনাও জানিয়েছেন সকলে।